Wednesday, April 22nd, 2020

Astro Research Centre

বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী রয়েছে আটটি দিক যেমন, উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব, পশ্চিম, ঈশান, নৈর্ঋত, অগ্নি এবং বায়ু

বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী রয়েছে আটটি দিক যেমন, উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব, পশ্চিম, ঈশান, নৈর্ঋত, অগ্নি এবং বায়ু

বাড়ি, গৃহ বা ফ্ল্যাট থেকে শুরু করে ঘরের আসবাব, বাগান তৈরি প্রতিটা ক্ষেত্রই হতে পারে বাস্তু মেনে। কারণ এর রয়েছে অনেক সুফল, মত বিশেষজ্ঞদের। বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী রয়েছে আটটি দিক যেমন, উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব, পশ্চিম, ঈশান, নৈর্ঋত, অগ্নি এবং বায়ু। আর আপনার বাস্তুতে এই প্রত্যেকটি দিকের রয়েছে আলাদা আলাদা গুরুত্ব।

পূর্বদিক- পড়ার ঘর, পুজোর ঘর, কাজের ঘর এগুলি এই দিকে মুখ করে করা যেতে পারে। এমনকি বাড়ির আলমারী বা সিন্দুকও এই দিকে মুখ করে খোলা বাস্তুমতে ভালো। বাড়িতে এইদিকে খোলা জায়গা থাকা বেশ ভালো কারণ বাস্তুমতে এটি দেবরাজ ইন্দ্র দিক।

পশ্চিমদিক- বাড়ির এই দিকে স্টোর রুম, সিঁড়ি বা জলের ট্যাংক করতে পারেন। বাস্তুমতে এই দিক বরুণ দেবতার দিক।

উত্তরদিক- বাড়ির এই দিকে কখনই শৌচালয় বানাবেন না। কারণ এই দিক বাস্তুমতে কুবেরের দিক। তাই এই দিকে সিন্দুক বা টাকা রাখার জায়গা রাখতে পারেন।

দক্ষিণদিক- বাড়ির এই দিকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু রাখবেন না। বাস্তুমতে এই দিক যমের দিক। বিশেষ করে খাবার টেবিল বা রান্নাঘর এই দিকে কখনই করবেন না।

ঈশানদিক- এই দিক বাড়ির জন্য খুব শুভ। এই দিক দেবাদিদেব মহাদেবের দিক। তাই বাড়ির এই দিকে কিছুটা ফাঁকা জায়গা রাখুন। বাড়ির এই দিকে কোনও সমস্যা হলে বংশবৃদ্ধির ক্ষেত্রেও সমস্যা হয় বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।
নৈর্ঋতদিক- বাস্তুমতে এইদিক আপনার জীবন থেকে দানবদের রক্ষা করে। এই শব্দের অর্থ হল দানব। বাড়ির এই দিকে জলের ট্যাংক কখনই করবেন না।

অগ্নি- বাড়ির এই দিকে স্নানাগার, শৌচালয়ের মতো কিছু রাখবেন না। বাড়ির এই দিক অগ্নিদেবের দিক।

বায়ু- উন্নত স্বাস্থ্য বা দীর্ঘজীবন দিতে পারে এই দিক। এই দিক পবন দেবের দিক। পরিবারের পারস্পরিক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য এইদিক খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই দিক তাই ব্যবহার করুন বৈঠকখানা হিসেবে। যেখান ঘরের সকল সদস্য একসঙ্গে বসতে পারবে। তবে এইদিকে খাবার ঘর করা যাবে না বা শোওযার ঘর হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে না।


Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন


হাউজিং এর দ্বারা পরিচালিত দেশের 8 টি প্রধান শহরের উপর গবেষণায়, আমরা দেখেছি যে 90% এর বেশি বাড়ির ক্রেতারা এমন একটি বাড়ি পছন্দ করে যা বাস্তু -অনুবর্তী। বাস্তুর নিয়মের সাথে মানানসই হতে এমনকি ঘরের আকার এবং নকশার সঙ্গে আপোষ করতে ইচ্ছুক লোকের সংখ্যাও আশ্চর্যজনক । আমরা এই ব্লগের পোস্টে একটু গভীরভাবে এই গুলি আলোচনা করবো ।

পূর্বে, বাস্তু শাস্ত্রের নীতিগুলি রক্ষণশীলদের জন্য ছিল, এবং ফেংশুই আরও আধুনিক মানসিকতার জন্য ছিল; কিন্তু এখন আপনি এমন জ্যোতিষী এবং পন্ডিত পাবেন যারা উভয় এর সমন্বয়ের প্রস্তাব করেন । আপনি এমনও বাড়ি দেখতে পাবেন যাদের বিছানা এবং সোফা বাস্তু অনুযায়ী স্থাপন করা থাকে এবং ঘরের সাজসজ্জা ফেংশুই মতে থাকে, যেমন বাড়িতে একটি বুদ্ধ দরজার দিকে মুখ করে রাখা আর জানালার উপরে উইন্ড-চাইম ঝোলানো I এই দুটি প্রাচীন বিজ্ঞানে প্রায় সবকিছুর সমাধান আছে এবং ইন্টারনেটের টিপস, গাইড এবং কিভাবে করনীয় ব্লগের সাথে, আপনি যখন শুরু করেছেন তখন আপনি আসলে কি অর্জন করতে চাইছেন তা দৃষ্টিতে আনা খুব সহজ । এখানে বাড়ির জন্য মূল বাস্তু এবং আসবাবপত্রের দিকনির্দেশনা, ডেকর নির্বাচন, মন্দির বসানো এবং কাজের জন্য ফেংশুই পরামর্শ সহ, একটি ভাস্তু-ফেংশুই 101 রয়েছে।



উপাসনার স্থান



পূজার স্থান ভারতীয় বাড়ির একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। কিছু লোক হয়তো বাস্তু বা ফেংশুই এর ধারনাতে বিশ্বাস করেন না, কিন্তু, সেটি যখন মন্দিরের মত একটি পবিত্র স্থানের ব্যাপারে হয়, শক্তি প্রবাহ কে অবশ্যই মূল্যায়ন এবং সমন্বিত করা প্রয়োজন। এখানে বেশি ব্যতিব্যস্ত হবার কিছু নেই ; আপনার বাড়িতে ইতিবাচক শক্তি প্রবাহিত করার জন্য এখানে কিছু সহজ ধাপ রয়েছে। বাড়ির জন্য বাস্তু শাস্ত্রের উপর ভিত্তি করে, পূজা, প্রার্থনা এবং ধ্যানের কক্ষ বাড়ির উত্তর-পূর্ব এলাকায় রাখা উচিত। বিকল্পভাবে, সেটি উত্তর বা পূর্ব অঞ্চলেও থাকতে পারে। পূজা করার সময়, লোকের পূর্ব দিকে মুখ করে বসা উচিত এবং মূর্তি যেন উচ্চতায় 6 ইঞ্চি অতিক্রম না করে । যেই ঘরে পুজো করা হয়,ওই ঘরে ঘুমানো উচিত নয়। প্রার্থনা করার আদর্শ দিক হলো সেসময় পূর্ব বা পশ্চিমে মুখ করে থাকা। বাড়িতে উপাসনার স্থান এর জন্য নির্দেশিকা ফেং শুই এবং বাস্তু শাস্ত্রে প্রায় একই।



Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন


শয়নকক্ষ এবং সম্পদ

প্রধান শোয়ারঘর বাড়ির দক্ষিণ অংশে অবস্থিত হওয়া উচিত, এবং যদি শোয়ারঘর টি উত্তরে অবস্থিত থাকে তবে এটি বিশ্বাস করা হয় যে পরিবারে অস্বস্তির সম্ভাবনা বেড়ে যায়। বিছানা এমনভাবে স্থাপন করা উচিত যে বিছানার মাথার দিকের বোর্ডটি ঘুমানোর সময় দক্ষিণ বা পশ্চিমে থাকে, উত্তর দিকে মাথা করে ঘুমানো সবসময় এড়ানো উচিত। পারিবারিক সদস্যদের শোয়ারঘর খাবার গ্রহণ করা উচিত নয় এবং তা করলে অসুস্থতার সৃষ্টি হয় , বিশেষত যদি তারা বিছানা উপর বসে খায় I শোয়ার ঘরে ঠাকুরের মূর্তি রাখা উচিত নয় । যদি বাড়ির একাধিক তলা থাকে, তাহলে প্রধান শোয়ারঘরটি সবচেয়ে উপরের তলায় থাকা উচিত এবং সিলিংটি সমতল হওয়া উচিত ও তা ভাঙা হওয়া উচিত নয় । এটি ঘরের মধ্যে একটি অভিন্ন শক্তি বজায় রাখে, যা মস্তিষ্কের একটি স্থির অবস্থা দেয়। মূল বাস্তু প্রতিকারগুলি এই পরামর্শ দেয় যে, শিশুদের ঘর উত্তর পশ্চিম বা পশ্চিম থাকা উচিত, এবং মনোযোগ বাড়ানোর জন্য , তাদের নিজের শোয়ার ঘরের কাছাকাছি পৃথক পড়ার স্থান থাকা উচিত । সম্পদ এবং অর্থ উত্তর দিকে সংরক্ষণ করা উচিত , যার মানে আপনি অর্থ রাখা এবং পুনরায় নেবার সময় উত্তর দিক মুখ করে থাকবেন, এবং দক্ষিণে মুখ করে গহনাকে রাখা উচিত কারণ এটি সম্পদ বৃদ্ধি করে বলে মনে করা হয়।


Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন

বাড়ির অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হল বাথরুম। শৌচালয় ছাড়া যে কোনও বাড়িই অসম্পূর্ণ। কিন্তু বাড়িতে শৌচাগার বানানোর সময় বাস্তুর খেয়াল রাখতে হবে বৈকি। বাস্তু বিশেষেজ্ঞদের মতে বাড়িতে বাথরুমের অবস্থান ঠিকমতো না হলে তা অশুভ শক্তি ডেকে আনতে পারে। কারণ বাড়ির অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলেও শৌচাগারের মধ্যে নেগেটিভ এনার্জির উত্‍স হয়ে ওঠার বিপুল সম্ভাবনা থাকে।


এই কারণেই আগেকার দিনে মূল বাসভবন থেকে দূরে বিচ্ছিন্ন ভাবে শৌচালয় নির্মাণের প্রথা ছিল। আজকের দিন অধিকাংশ ফ্ল্যাট বাড়িতে তা সম্ভব নয়। কিন্তু বাড়িতে শৌচালয় বানানোর আগে জেনে নিন কয়েকটি ছোট্ট টিপস।

* টয়লেটের পশ্চিম, দক্ষিণ অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক করে কমোড বসান।


* যদি বেডরুমের সঙ্গে সংযুক্ত বাথরুম হয়, তাহলে ঘরের পশ্চিম দিকে শৌচাগার বানান।

* টয়লেটের মধ্যে কমোড এমন ভাবে বসাতে হবে যাতে কমোড ব্যবহারের সময় সেই ব্যক্তিকে পূর্ব অথবা পশ্চিম দিকে মুখ করে না বসতে হয়।


* মেঝে থেকে ১-২ ফুট উঁচুতে শৌচাগার বানান।

* টয়লেটের মেঝের ঢাল থাকবে পূর্ব অথবা উত্তর দিকে। যাতে শৌচাগারের ব্যবহৃত জল এই দুই দিক দিয়ে বেরিয়ে যেতে পারে।

* বাথরুমের জলের কল, শাওয়ার থাকবে পূর্ব, উত্তর অথবা উত্তর-পূর্ব দিকে।

* বাথরুমের দেওয়ালের রং যা খুশি লাগাতেই পারেন, তবে হালকা রং পছন্দ করাই ভালো।

* বাথরুমে একটা ছোট্ট জানালা থাকবে পূর্ব, পশ্চিম অথবা উত্তর দিকের দেওয়ালে।

* শৌচাগারের ঠিক নিচে বা ওপরে যেন ঠাকুর ঘর বা রান্নাঘর না থাকে, সেটা খেয়াল রাখবেন।



বাড়ির অন্যান্য অংশ
খাওয়ার ঘর পশ্চিমে মুখ করা হওয়া উচিত, কারণ এটি শনি দ্বারা পরিচালিত হয় যা বকাসুর এর পথকে প্রতীকী করে, যা ক্ষুধার প্রতিনিধিত্ব করে।
যদি আপনি বাড়িতে গাছপালা রাখার পরিকল্পনা করেন তবে এটি পরামর্শ দেয়া হয় যে আপনি ক্যাকটি এর মত কাঁটাগাছ এড়িয়ে যান এবং উত্তর ও পূর্ব দেয়ালের পাশে গাছগুলি বসানোর থেকে বিরত থাকুন ।

Vastu Remedies Tips for Your New Home

উত্তর-পূর্ব, উত্তর-পশ্চিমে, উত্তর, পশ্চিম এবং পূর্ব কোণগুলি একটি অধ্যয়ন কক্ষের জন্য সর্বোত্তম। এই দিকগুলি বুধের ইতিবাচক প্রভাবকে আকর্ষণ করে,যাতে মস্তিষ্কের শক্তি বৃদ্ধি হয়, বৃহস্পতির জ্ঞান বৃদ্ধি করে, সূর্য উচ্চাকাঙ্ক্ষা বাড়ায় এবং শুক্র নতুন চিন্তাধারা ও ধারণায় সৃজনশীলতাকে আনয়নে সহায়তা করে। বিকল্পভাবে,পড়ার ঘর এবং শোয়ার ঘর একই দিকে অবস্থিত হতে পারে। একটি আদর্শ ব্যবস্থায় অধ্যয়ন কক্ষ এবং পূজা স্থান একে অপরের সাথে বা একই ঘরে অবস্থিত হওয়া উচিৎ।
বাড়ির প্রধান গেট দুটি তে প্যানেল থাকা উচিত। বাইরের দিকের দরজাটি বাড়ির ভিতর দিকে খোলা উচিত নয়, এবং বাড়ির দরজাতে চিড় থাকা উচিত নয় ।
স্নানেরঘর অবশ্যই পূর্ব বা উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত থাকা উচিত , তবে উত্তর-পূর্ব দিকে কখনোই হওয়া উচিত নয় । ধোয়ার বেসিন স্নানঘরের পূর্ব দিকের দেয়ালে লাগানো উচিত এবং দক্ষিণ-পূর্ব কোণে গিজার স্থাপন করা উচিত।

সময় খারাপ যাচ্ছে, পদে পদে বাধা? কিছু কিছু জিনিস আপনার জীবনের নানা নেতিবাচক বা অশুভ শক্তির প্রভাব খাটায়। যার ফলে জীবনে উন্নতির পথ প্রশস্ত করতে সহায়তা করে। জ্যোতিষ ও বাস্তুশাস্ত্র মতে, কিছু জিনিস বাড়ির মধ্যে রাখলে জীবনের অনেক বাধা-বিপত্তি কাটিয়ে ওঠা যায় সহজেই।

১) অনেক সময় কঠোর পরিশ্রম করেও ভাগ্যের সাহায্য মেলে না। সে ক্ষেত্রে কিছু কিছু জিনিস এড়িয়ে চলা ভালো। যেমন এক সঙ্গে অনেক জিনস সংগ্রহ করবেন না।

২) বাড়িতে ফুলের গাছ রেখে রেখে দেখুন। বাস্তুশাস্ত্র মতে, ওই ফুলের টব বাড়ির নেতিবাচক শক্তি শুষে নিয়ে সৌভাগ্যের পথ প্রসস্ত করবে।


৩) ঘরের মধ্যে একটি পাত্রে নুন রেখে দিন। বাস্তু মতে নুন অশুভ শক্তির বিনাশ ঘটিয়ে শুভশক্তির প্রকাশ করে।
ঘরের কোনায় কোনায় একটি পাত্রে নুন রেখে দিন। এর ফলে আপনার বাস্তু বা ঘর অশুভ বা নেতিবাচক শক্তির প্রভাব থেকে মুক্ত হবে।


Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন


উত্তর-পূর্ব কোণে বসে ধ্যান প্রাণায়াম করুন

সন্তানের পড়ার টেবিলটা ঘরের পূর্বদিকে রাখুন

অর্থের যোগান বজায় রাখতে দেওয়ালে লাল রঙের ঘোড়ার ছবি লাগান 

ভবিষ্যত জীবনকে সুখকর করতে খাটের নীচ ফাঁকা রাখুন

জীবনে সফল কে না হতে চায়, তবে এই সাফল্য ধরে রাখাই সবথেকে বড় কথা। আর সেজন্য পরিশ্রমের পাশাপাশি বাস্তুশাস্ত্রবিদরা বলেন কয়েকটি টোটকা মেনে চলতে। কারণ অনেক ক্ষেত্রেই অতিরিক্ত পরিশ্রম করা হলেও ঠিক সময়ে সাফল্য আসে না। তাই জীবনে যদি সাফল্য পেতে চান এবং সাফল্যকে ধরে রাখতে চান তাহলে এই টোটটকাগুলি মেনে চলুন।
১) আপনার মন যদি হয় চঞ্চল হয় বা কোনও কাজে যদি মন স্থির করতে না পারেন তাহলে ঘরের উত্তর-পূর্ব কোণে বসে থাকুন এবং পারলে সেখানে বসেই ধ্যান বা মনোসংযোগ করুন। 
২) পড়ার টেবিলটা ঘরের পূর্বদিকে রাখুন। এবং পূর্বদিকে মুখ করেই সন্তানকে পড়তে বসান। ভাল ফল পাবেন। 
৩)  ঘরের যেকোনও দেওয়ালে লাল রঙের ঘোড়ার ছবি লাগান, এতে অর্থের আগমণ খুব দ্রুত হবে।
৪) অনেকেরই প্রবণতা রয়েছে বাড়িতে খাটের নীচে জিনিসপত্র বোঝাই করে রেখে দেন। কিন্তু বাস্তুশাস্ত্রবিদরা বলেন, এইভাবে খাটের নীচে জিনিসপত্র বোঝাই করে রাখা উচিত নয়। বরং খাটের নীচ ফাঁকা রাখলে ভবিষ্যত জীবন সুখকর হবে, জীবনে আসবে সাফল্য।
৫)  ঘরের উত্তর-পূর্ব দিকে রাখুন অ্যাকোয়ারিয়াম। এতে জীবনের উন্নতি তরান্বিত হবে। 
৬) বাথরুম কখনওই বাড়ির সদর দরজার দিকে তৈরি করবেন না। এতে আপনার পরিবারের ওপর বিপদের আশঙ্কা বাড়বে। 
৭) সংসারে উন্নতি ঘটাতে এবং সংসারের শ্রী-বৃদ্ধি করতে রান্নাঘরে গ্যাস এবং জলের কলের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখুন।  


Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন



Blog Url:
https://arcsm.in/blog.php?blog=20200422212429