Thursday, April 30th, 2020

Astro Research Centre

সপ্তমভাব থেকে স্বামী বা স্ত্রীর চরিত্র জেনে নিন -

সপ্তমভাব থেকে স্বামী বা স্ত্রীর চরিত্র জেনে নিন -

সপ্তমভাব থেকে স্বামী বা স্ত্রীর চরিত্র জেনে নিন -

জ্যোতিষ নিয়মে সপ্তমভাবকে নিয়ে অনেক আলোচনা করা যায়। আমরা এখানে বিবাহ, স্বামী-স্ত্রী বা পতি-পত্নী নিয়ে আলোচনা করব। সপ্তম ভাব পার্থিব মিলনের ভাব এবং বৈধ সম্বন্ধের নিদের্শেক। এখান থেকে বিবাহিত জীবন দাম্পত্যসুখ, বিরহ, স্বামী বা স্ত্রীর চরিত্র প্রসঙ্গে জানা যায়। আমরা এখানে বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন গ্রহ অবস্থান করার জন্য স্বামী বা স্ত্রী কেমন হবে সেই বিষয়ে দিক নির্দেশ করব—

(১) সপ্তমে রবি শুভ ভাবে থাকলে একটু উচু ঘরে বিয়ে হয়। অনেক ক্ষেত্রে স্ত্রী চাকুরীরতা হন। তবে সপ্তমে রবি থাকলে দাম্পত্য সুখের কিছু হানি হয়ে থাকে। তবে রবির সঙ্গে বুধ সংযুক্ত থাকলে অবস্থা অনেকটা সামাল দেওয়া যায়। না হলে জাতকের স্ত্রীর সন্তাপ হেতু বা অন্য কোনও কারণে ব্যাকুল থাকতে হয়ই। জাতক/জাতিকার সব সময় মনে কী ভাবে স্ত্রী বা স্বামীকে সুখী রাখব আর এই চিন্তা থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোনও এক সময় বিচ্ছেদ আসে বা আলাদা থাকে।


(২) সপ্তমে চন্দ্র শুভ ভাবে থাকলে ভাল শোভনযুক্ত নরম মনের স্ত্রী পেয়ে থাকে, দাম্পত্য সুখশান্তি লাভ হয়। ক্ষীণচন্দ্র পাপযুক্ত বা দৃষ্ট হলে জাতক/জাতিকা অসুস্থ স্ত্রী/স্বামী লাভ হয়। ফলে দাম্পত্য সুখে অনেকটা হানী হয়। দুর্বল চন্দ্রে মায়ের সঙ্গে বউয়ের মন কষাকষি থাকেই।

(৩) সপ্তমে মঙ্গল থাকলে জাতক/জাতিকা বলিষ্ঠ স্বভাবের স্ত্রী বা স্বামী লাভ হয়। এখানে মঙ্গল কুজ দোষ বা ভৌম দোষ সৃষ্টি করে, এতে বউ বা স্বামী মারা যায় অথবা বিচ্ছেদ হয়। বিবাহিত জীবন যদি টিকে যায় তবে চনমনে স্বভাবের স্বভাবের বউ বা স্বামী লাভ হয়। এখানে স্বামি স্ত্রী পরস্পর পরস্পরকে প্রবলভাবে চায়। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে নিত্য খুনসুটি হয়। এই ভাবেই দাম্পত্য জীবন চলে। অনেক সময় সপ্তমস্থ মঙ্গল (বৃশ্চিক রাশিতে) কিছুটা পুরুষ স্বভাবযুক্ত স্ত্রী লাভ হয়।

(৪) সপ্তমে বুধ থাকলে জাতক আজীবন বালিকা স্বভাবের বউ পেয়ে থাকে। একই ভাবে জাতিকারা বালক স্বভাবের স্বামী পেয়ে থাকে। বেশীর ভাগ ক্ষেত্রে অল্প বয়সেই বিয়ে হয়। এরা দাম্পত্য সুখে সুখী হয়। যত দিন সপ্তম ভাব অশুভ গ্রহ দ্বারা আক্রান্ত না হয়। এদের মধ্যে আজীবন কচি কচি ভাব থাকে, যা অনেক সময় লোকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। পুরুষ জাতকের পক্ষে স্ত্রী সম্ভোগের সময় তার শুক্রের ধারণা শক্তির স্থায়িত্বকাল বেশী সময় থাকে না।

যেহেতু মঙ্গল শক্তি ও সাহসের সূচক, ৭ম স্তানে অধিষ্ঠান করে এটি আপনার মধ্যে প্রচুর ক্ষমতা ও আক্রমণাত্মক মনভাবের সৃষ্টি করবে। ৭ম স্থানে মঙ্গলের উপস্থিতির কারণে আপনি সর্বদা সব বিষয়ে নিজের কর্তৃত্ব প্রকাশে সচেষ্ট থাকবেন। মঙ্গল এমন একটি গ্রহ, যার সম্বন্ধে আগে থেকে নিশ্চিত করে কিছু বলা যায় না। এই গ্রহ আপনাকে জীবনে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবার সাহস জোগাবে। আপনি সকল্প্রকার বিরুদ্ধ শক্তির সঙ্গে লড়াই করতে সক্ষম হবেন। যদি মঙ্গল উচ্চস্থ থাকে, তবে তা আপনার মধ্যে প্রচুর আত্মবিশ্বাসের সৃষ্টি করবে। যদি অন্য কোনো অশুভ যোগ না থাকে, তাহলে আপনি একজন সৎ ও রক্ষণশীল মানুষ হিসাবে পরিচিত হবেন। আপনি রিয়েল এস্টেট, ভূমি, কারিগরি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রভূত উন্নতি করবেন।


(৫) সপ্তমে বৃহস্পতির জাতক/জাতিকা ভাল চরিত্রের স্ত্রী বা স্বামী লাভ করে থাকে। শাস্ত্রে বলা আছে সপ্তমস্থ বৃহস্পতি জাতকের ক্ষেত্রে নিবিড় নিতম্বিনী, পঙ্কজ নয়না মনোরমা স্থির যৌবন ভাবাপন্না পতিপ্রাণা ধর্মকর্মে নিপুণ গুণবতী বউ লাভ হবে। এইখানে বৃহস্পতি থাকা মানেই জ্ঞানী বা বোধসম্পন্ন স্বামী বা স্ত্রী লাভ হবে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে এই বৃহস্পতি একবারই বিয়ে করায়।

৭ম স্থানে মঙ্গলের অবস্থান মাঙ্গলিক যোগের সৃষ্টি করে। মঙ্গল বিবাহে বাধা ও দীর্ঘতা সৃষ্টি করে। ভুল বোঝাবুঝির কারণে আপনার বিবাহিত জীবন নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এর পিছনে নানা কারণের মধ্যে অহংকারবোধ কেই অন্যতম প্রধান হিসেবে ধরা হয়।
নীচস্থ বা পীড়িত মঙ্গল আপনার ব্যবসায়ী অংশীদার দের সঙ্গে সম্পর্কে সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। যদিও আপনার অবিশ্রান্ত কঠোর পরিশ্রম আপনাকে মার্কেটিং, সেলসম্যানশিপ প্রভৃতি ক্ষেত্রে ভাল ফল দেবে।
বিবাহের স্থানে মঙ্গলের প্রভাবকে শুভ বলে গণ্য করা হয় না। এটি বিবাহিত জীবনে হতাশা এনে দিতে পারে। আপনি হয়তো অহঙ্কারবোধের কারণে সবসময় বোঝাপড়ায় রাজি নাও হতে পারেন।



(৬) শুক্র জায়া ভাবে অবস্থান করলে শাস্ত্রে বলা আছে জাতক পরমাসুন্দরী চিরযৌবনা, পঙ্কজাক্ষী বিচিত্রবেশভূষণাঢ্যা স্ত্রী লাভ হবে। অনেক ক্ষেত্রে নৃত্য জানা, গান বাজনায় পটু, কলাবিদ্যায় পারদর্শী বউ লাভ হয়। জাতিকারা এই রকম বিপরীত ভাবনাযুক্ত হ্যান্ডসাম স্বামী লাভ করবে। সামাজিক ভাবে জাতক/জাতিকা এক স্ত্রী বা স্বামী নিয়ে ঘর সংসার করলেও সপ্তমে শুক্র থাকলে তারা কখনওই এক স্বামী বা এক স্ত্রীতে সন্তুষ্ট নয়। বহুচারিতা বা বহুগামিতা সপ্তমস্থ শুক্রের বৈশিষ্ট।

(৭) সপ্তমে স্ত্রী শনি থাকলে জাতক সুন্দরী বলতে যা বোঝায় তা লাভ হয় না। কিন্তু বিশ্বস্ত, নিষ্ঠাবতী, কর্মঠ স্ত্রী লাভ হয়। তার চেহারা ও জৌলুশে গ্ল্যামার থাকে না এবং চেহারায় কমবেশি শুষ্কতা থাকে। জীবন সংগ্রাম করতে করতে সে একটু কাঠখোট্টা গোছের হয়। সপ্তমে শনি থাকলে জাতক/জাতিকার দেরিতে বিয়ে হয়। এখানে স্ত্রী কিছুটা মায়ের মতো হয়। সে স্বামীর সব খুঁটিনাটি বিষয়ে নজর দিয়ে থাকে। এখানে শনি থাকলে জাতক/জাতিকা যে স্ত্রী বা স্বামী পাবেন সে বিপদের দিনে পরস্পর পরস্পরকে ছেড়ে পালিয়ে যায় না যেটা সপ্তম ভাবে আর কোনও গ্রহ দেয় না। এখানে শুভ শনির দৃষ্টি থাকলেও এই একই ফল পাওয়া যায়।

৭ম স্থানে মঙ্গলের অবস্থান পুরুষের চাইতে মহিলাদের ক্ষেত্রে বেশি ক্ষতিকর বলে গণ্য করা হয়। অদম্য অহঙ্কারবোধের কারণে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে মাঝেমধ্যেই ঝামেলার আশঙ্কা থাকে। সুতরাং ৭ম স্থানে মঙ্গলের অবস্থান বিশেষত মহিলাদের পক্ষে একেবারেই শুভ নয়।
তবে উচ্চস্থ মঙ্গলের কারণে তিনি একজন উচ্চপদস্থ সরকারি কর্তাকে স্বামী হিসেবে লাভ করতে পারেন। এর সাথে যদি ১ম স্থানে উচ্চস্থ বৃহস্পতি অবস্থান করে, তাহলে সেই সংযোগের ফলে বিবাহের পরে সেই মহিলার সামাজিক মর্যাদার উন্নতি ঘটে।






(৮) সপ্তমে রাহু থাকলে এবং এই রাহুকে কোনও শুভ গ্রহ দৃষ্টি না দেয় বা যুক্ত না হয়, তা হলে ধরেই নিতে হবে জাতক হলে অশুভ ও অসৎ চরিত্রের স্ত্রী পাচ্ছেন, তাকে বাইরের দিক থেকে দেখতে যতই সুন্দরী বা করিত্কর্মা বা পড়াশোনা জানা হোক না কেন, আমি ব্যক্তিগত ভাবে এটাকে কর্মফল বলেই মনে করি।

সপ্তমে রাহু মানেই অতৃপ্ত স্বভাবের স্বামী বা স্ত্রী লাভ হয়। এরা আজন্ম অতৃপ্ত, কোনও ভাবেই এদের সন্তুষ্ট করা যায় না।

(৯) সপ্তমে কেতু রাহুর মতোই অতৃপ্ত, এদের মধ্যে ভয়ঙ্কর মাত্রায় গোপনচারিতা থাকে যা বাইরে থেকে কিছুতেই বুঝতে পারা যায় না। এরা স্বামী বা স্ত্রী কম বেশী অসুস্থ মনের হয়। স্বভাবে বেশ খিটখিটে। শুভ গ্রহ দৃষ্টি পেলে ফলের মাত্রার তারতম্য ঘটবে।



৭ম স্থান আমাদের জীবনে বিবাহ, ব্যবসা, অংশীদারি, জীবনসঙ্গী, বিদেশযাত্রা, পেশা প্রভৃতিকে সূচিত করে। ৭ম ভাবে অবস্থিত গ্রহ সাধারণত আমাদের ইচ্ছা ও আশা-আকাঙ্খার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ৭ম ভাবে অবস্থিত যেকোনো গ্রহ লগ্নে সরাসরি দৃষ্টি প্রদান করে কোhষ্ঠীর ভিতকে পোক্ত করতে সাহায্য করে।

Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here


পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন

জ্যোতিষ শাস্ত্র বা জন্ম কুণ্ডলী নিয়ে কোনো প্রশ্ন থাকলে আমার হোয়াটস্যাপ no 8906959633
নিজের নাম, ঠিকানা ও জন্ম তারিখ, সময়, স্হান লিখে পাঠাবেন



Blog Url:
https://arcsm.in/blog.php?blog=20200430204334