Monday, June 1st, 2020

Astro Research Centre

মাঙ্গলিক দোষ কাটাতে কি করবেন

মাঙ্গলিক দোষ কাটাতে কি করবেন

মাঙ্গলিক দোষ কাটাতে কি করবেন

সাধারনত মঙ্গলের লগ্ন, ২য়,৪র্থ, ৭ম,৮ম ও ১২শ ঘরে মঙ্গলের অবস্থানে মাঙ্গলিক হয়, আবার ঠিক এই সব ঘরে যদি শনি বা রাহু থাকে তাহলে মাঙ্গলিক কেটে যায় । তাছাড়া উচ্চস্থ/ নিচস্থ মঙ্গল এই সব স্থানে থাকলেও নাকি মাঙ্গলিক কেটে যায় । মঙ্গলের উপরে বৃহস্পতির দৃষ্টি থাকলে নাকি মাঙ্গলিক কেটে যায় ।

যাই হোক মাঙ্গলির দোষের ফলাফল হিসাবে যেসব কথা জ্যোতিষিরা বলে থাকেন তা হল ডিভোর্স, স্বামী বা স্ত্রীর মৃত্যু, উন্নতিতে বাধা, সাংসারিক অশান্তি ইত্যাদি ইত্যাদি ।

কিন্তু জ্যোতিষে শুধুমাত্র একটি গ্রহের অবস্থানের ভিত্তিতে এই সব ফলাদেশ দেওয়া উচিৎ না । যদি শুধুমাত্র একা মঙ্গলের এই সব স্থানে এই রকম ফলাফল হয় তাহলে প্রতিটি মাঙ্গলিক ছকে এই ফলাফল হত । কিন্তু সব ছকে এই ফলাফল দেখতে পাওয়া যায় না ।

আসলে জন্মছকে প্রিয়ামৃতম বা বৈধব্য যোগ না থাকলে ,শুধুমাত্র মঙ্গলের একটি ঘরে অবস্থান হেতু মাঙ্গলিক যোগের কারনে কারও স্বামী বা স্ত্রী মারা যাবে না, আর ডিভোর্সের ক্ষেত্রও জন্মছকে আইনত সমস্যা এর যোগ অর্থাৎ ১+৩+৬+৭ এর কানেক্সন দেখে বলতে হবে বিয়ে টিকবে না ডিভোর্স হবে ।

এই দশা কাটানোর একাধিক উপায় রয়েছে—

যদি দু’জন মাঙ্গলিকের মধ্যে বিবাহ হয়, তবে দু’জনেরই এই দশা কেটে যায়।

কুম্ভবিবাহ নামের একটি রীতির মাধ্যমে বিয়ের আগে কাটানো হয় মঙ্গল দশা। এই রীতিতে মাঙ্গলিক জাতক বা জাতিকাকে হয় একটি কলাগাছ বা পিপুল গাছ অথবা ভগবান বিষ্ণুর একটি স্বর্ণ বা রৌপ্য মূর্তির সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হয়।

প্রতি মঙ্গলবার নবগ্রহ মন্ত্র উচ্চারণ করলে এই দোষ কেটে যায়। আবার প্রতিদিন ১০৮ বার গায়ত্রী মন্ত্র জপ করলে বা প্রতিদিন হনুমান চালিসা পাঠ করলেও কেটে যায় মঙ্গল দশা।

হনুমানজির প্রসাদ সকলকে দান করুন।

হনূমান মন্দিরে লাল বস্ত্র বা সিঁদুর দেন করুন উপকার পাবেন।

প্রত্যহ গায়েত্রী মন্ত্র পাঠ করুন।

দূর্গা মাতার একটি ছবি বাড়িতে রাখুন।

একটি লাল রুমাল সবসময় সাথে রাখুন।

সোনার আংটিতে একটি রক্তপ্রবাল অনামিকাতে ধারণ করুন।

হনূমান বা বাঁদর কে যেকোনো মঙ্গলবার খাওয়ালে এই দোষ কেটে যায়।

কালো কুকুরকে খাওয়ান।

বিবাহের পূর্বে কোনো ভালো জোতিষী দ্বারা পূজা পাঠ করিয়ে নিন।

নবগ্রহ মন্দিরে ভক্তিভরে পুজো দিলে কেটে যায় মঙ্গল দশা।

মঙ্গলবার দানধ্যান করলেও তুষ্ট হন মঙ্গলদেব। এছাড়া তলোয়ার, ছুরি, মুসুর ডাল, লাল সিল্ক, রক্তপ্রবাল ইত্যাদি লাল বস্তু নিবেদন করলেও সন্তুষ্ট হন তিনি।

যাদের মঙ্গল দশা থাকে তাদের সাধারণত জ্যোতিষমতে রক্তপ্রবাল ধারণ করতে বলা হয়। তবে কোনও জ্যোতিষশাস্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ না করে কোনও কিছু ধারণ করা উচিত নয়।

প্রতি মঙ্গলবার হনুমানজীর পূজা ও সাথে হনূমান চালিসা পাঠ করুন বা শুনুন।

Astro Research Centre

Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 /9593165251 Email --lobmukherjeejsmarc@gmail .com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre contact www.arcsm.in
My website- arcsm.in
Please visit here
For Registration check in here.
All kind of Gems Stone are Testing here
All Kind of Certified Gems and Stone available here

পাইকারী ও খুচরা মূল্যে সকল প্রকার রত্ন পাওয়া যায়
রত্ন ব্যবসায়ীরা ও জ্যোতিষ বন্ধুরা যোগাযোগ করুন

জ্যোতিষ শাস্ত্র বা জন্ম কুণ্ডলী নিয়ে কোনো প্রশ্ন থাকলে আমার হোয়াটস্যাপ no 8906959633
নিজের নাম, ঠিকানা ও জন্ম তারিখ, সময়, স্হান লিখে পাঠাবেন



Blog Url:
https://arcsm.in/blog.php?blog=20200601152024