yearly Horoscope

Year: 2019

Aries

Mar 21 - Apr 19

মেষ (২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল)
শুভ রং: লাল, সাদা, গোলাপি ও লাল-সাদা মেশানো
শুভ সংখ্যা: ৯
পাথর: রুবি, ব্লাড স্টোন, রক্ত প্রবাল ও হীরা
টোটকা:
শুভ দিন : মঙ্গলবার।
শুভ ধাতু : লোহা, ইস্পাত।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : ধনু, সিংহ।

মেষ রাশির জাতক
রাশিচক্রের প্রথম রাশি হলো মেষ। রাশিচক্রে মেষ নবজাতক এক শিশু, সম্পূর্ণভাবে যে তার নিজের চিন্তাতে মগ্ন। তার কাছে নিজের প্রয়োজনীয়তাই মুখ্য। কোনো মেষ জাতকের মনে নতুন কোনো ভাব বা পরিকল্পনার উদয় হলে সে তাত্ক্ষণিক সেটা প্রকাশ করতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। সে হয়তো কোনো দ্বিধা-দ্বন্দ্ব বা সংকোচ ছাড়াই তার বন্ধুকে ভোর চারটায় ফোন করে বসবে। শিশুদের মতোই মেষেরাও ভাবে জগতটা শুধু তাদের জন্যই তৈরি। মেষ জাতকেরা খুবই ‘সরাসরি’ গোছের মানুষ। জটিলতা, প্রতারণা, ঠকানো ইত্যাদি মেষ জাতকদের বিষয় নয়। মেষ জাতকেরা বেশ খোলামেলা মেজাজের এবং চিত্তাকর্ষী সততার অধিকারী হওয়া সত্ত্বেও বড় অঙ্কের আর্থিক ঝুঁকি তেমন একটা নেন না। তারা জীবন অত্যন্ত সাহসিকতা, কর্মোদ্দীপনা আর উদ্যোগের সঙ্গে যাপনে অভ্যস্ত। তারপরও তাদের সাহসী চরিত্রগুণেও একটা অদ্ভুত দুর্বলতা রয়েছে। এই রাশির জাতকেরা কখনো কখনো হয়তো ঘরের চারপাশে চকিতে তাকিয়ে নেয় এবং যদি তাদের মধ্যে এ ব্যাপারটি লক্ষ করেন, তবে বুঝে নেবেন সে আর আপনার সঙ্গে এখন কথা বলতে আগ্রহী নন। তার মনে এখন অন্যকিছু ঢুকেছে এবং আপনাকে সে এই মুহূর্তে ভুলে গেছে। মেষ জাতকদের ধৈর্যশক্তিটাও একটু কম। একজন মেষ জাতকের শারীরিক কাঠামো দেখে শনাক্ত করতে পারাটা খুব সহজ। এদের শারীরিক অবকাঠামোটা স্থির, প্রায়শই তীক্ষ, অবশ্য মাঝে মাঝে নম্র ও অস্পষ্ট। প্রায়শ তাদের স্পষ্ট ভুরুযুগল নাকের মাঝে এসে মিলিত হয়ে যায় এবং মেষের চিহ্নটা তৈরি করে। এই রাশির জাতকেরা খুব সাহসী হন। যতবারই ব্যর্থ হন, তারা আবারও একই উদ্দীপনা নিয়ে চেষ্টায় লিপ্ত হন। মেষ জাতকেরা এটা-ওটা অনেক কিছুকেই বিশ্বাস্য করে তুলতে পারে, তারা সুন্দর অনেক স্বপ্নের জালও কারও মধ্যে জন্ম দিতে সক্ষম, কিন্তু তারা শিশুসুলভ মিথ্যা আশ্বাসটি দিতে অক্ষম। অতিমাত্রায় আত্মবিশ্বাস অনেক মেষকে অথৈ সাগরে ফেলে দেয়। দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে অনেক অপকর্ম করে বসে তখন। একরাশ হতাশা ওই সময় এমনভাবে তাকে গ্রাস করে যে, পরাজয়ের ভয়ে জীবনের বাকি কাজগুলো করার ইচ্ছা আর থাকে না।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
মেষ রাশির জাতকজাতিকাদের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালে বিয়ে বা দাম্পত্য জীবনে সতর্ক পদক্ষেপের পরামর্শ দিচ্ছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা। সঙ্গীর সঙ্গে কহল বিবাদ লেগে থাকার সম্ভাবনা এই বছরে পরিলক্ষিত হচ্ছে বলে তাঁদের মত। মেষ রাশি বছরের প্রথমদিকে আপনারা রোম্যান্টিক জীবন ও যৌন জীবনে ভালো-মন্দ লেগেই থাকবে। অবিবাহিতরা উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে রোম্যান্টিক জীবন কাটাতে চলেছেন। তবে অগাস্টের পর থেকে যৌন জীবনে ব্যাপক সাড়া পেতে চলেছেন আপনারা। এদিকে, আপনাদের এই বছরটি ভালোয় মন্দোয় কাটতে চলেছে। বছরের প্রথমদিকে একটু চিন্তা ভাবনা. কাটলেও বছরের শেষে দিকে প্রতিক্ষিত শান্তি পেয়ে যাবেন কেরিয়ারের দিক থেকে। তবে কোনও কারণেই কাজের জায়গায় মাথা গরম করবেন না। মেষ রাশির জাতকরাও ২০১৯ সালে সাফল্যের মুখ দেখতে পারেন। তবে এর জন্য আত্মসংযম প্রয়োজন। আগামী বছর কার্যত এঁরা নিজের ভাগ্য নিজেই তৈরি করতে চলেছেন। এই বছরে মেষের জন্য অনেক মজাদার সুযোগ নিয়ে আসবে। আপনি এমন একটি প্রস্তাব পাবেন যা আপনি অগ্রাহ্য করতে পারবেন না। এর দ্বারা অবশ্যই এটি বুঝাবে যে আত্মত্যাগ অবশ্যই জরুরী। এই দ্বন্দ্বের সাথে মোকাবিলা করার সময় আপনি অনেকের কাছেই আত্মকেন্দ্রিক হিসেবে উপস্থাপিত হতে পারেন। নিজের ঘনিষ্ঠ কারো কাছ থেকে আপনি এই ব্যাপারে পরামর্ষ নিতে পারেন, যাকে আপনি বিশ্বাস করতে পারেন। আপনারা একত্রে সবচেয়ে উপযোগী সমাধানটি খুঁজে পাবেন।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
আপনাদের এই বছরটি ভালোয় মন্দোয় কাটতে চলেছে। বছরের প্রথমদিকে একটু চিন্তা ভাবনা. কাটলেও বছরের শেষে দিকে প্রতিক্ষিত শান্তি পেয়ে যাবেন কেরিয়ারের দিক থেকে। তবে কোনও কারণেই কাজের জায়গায় মাথা গরম করবেন না।

আপনার অর্থ ভাগ্য
মেষ রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য ২০১৯ আর্থিক দিক থেকে সুখবর আনতে চলেছে। আর্থিক অবস্থায় এই বছরে যেমন স্থিরতা আসবে তেমনই আসবে স্বচ্ছ্বলতা। বহু ক্ষেত্রেই আর্থিকভাবে ইতিবাচক সুযোগ আসতে চলেছে এঁদের জন্য।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
২০১৯ সাল মেষ রাশির জাতকদের পক্ষে সবচেয়ে ভালো ও লাকি প্রমাণিত হতে পারে। এই বছরে অনেকরই প্রেম জমে ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রেমের ক্ষেত্রে আরও বেশি পরিণত হয়ে ওঠার সম্ভাবনা থাকছে এখানে। মেষ রাশির জাতকজাতিকাদের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালে বিয়ে বা দাম্পত্য জীবনে সতর্ক পদক্ষেপের পরামর্শ দিচ্ছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা। সঙ্গীর সঙ্গে কহল বিবাদ লেগে থাকার সম্ভাবনা এই বছরে পরিলক্ষিত হচ্ছে বলে তাঁদের মত।

Taurus

apr 20 - may 20



বৃষ (২১ এপ্রিল - ২১ মে)
শুভ রং: আকাশি, নেভি ব্লু, লাল, কমলা ও সাদা
শুভ সংখ্যা: ৬
পাথর: হীরা, পোখরাজ ও পান্না
টোটকা:
শুভ দিন : শুক্রবার।
শুভ ধাতু : তামা, ব্রোঞ্জ।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : মকর, কন্যা, কর্কট।

বৃষ রাশির জাতক
বৃষ রাশির জাতকদের চোখের দৃষ্টি প্রশান্ত, নির্মল ও স্থির হয়। বৃষরা বিপরীত লিঙ্গের প্রতি দারুণভাবে আকৃষ্ট হয়। তারা সময়ের মতোই ধৈর্যশীল আর বনানীর মতোই গভীর এবং নির্ভর করার মতো শক্তিমান, যে শক্তি দিয়ে সে পর্বতও সরিয়ে দিতে পারে। কিন্তু সে জেদি। বৃষের কাছ থেকে অর্থ-সম্পদ খুব কমই আলাদা হতে দেখা যায়। কষ্টজনক হলেও সত্য যে, বৃষরা তাদের টাকা-পয়সার সঙ্গে ক্ষমতার প্রতিও বেশ আগ্রহী। এটি প্রয়োগের জন্য যতটা নয়, তারচেয়েও বেশি তার মনের স্বস্তির জন্য। টাকা-পয়সার পাশাপাশি তার যে ক্ষমতাও রয়েছে, তা যখন সে বুঝতে পারে শুধু তখনই সে নিরাপদ বোধ করে। বৃষ রাশির জাতক ও জাতিকারা বেশ স্বাস্থ্যবান আর শক্ত শারীরিক কাঠামোর অধিকারী হয়। তাদের অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়তে হলে যথেষ্ট কারণ থাকতে হবে। কিন্তু একবার বৃষ যদি বিছানায় পড়ে তো সেরে উঠতেও তার প্রচুর সময় লাগে। ঠাণ্ডা প্রায়শই তার গলা ফোলার কারণ হয়ে দাঁড়ায়, আর খাবারের প্রতি তার অতি আগ্রহ ও ভালোবাসা ওজনটাও বাড়িয়ে দেয়। খাবারের প্রতি তীব্র আগ্রহের ব্যাপারে বৃষকে পেটুক বলে আখ্যা দেওয়ার কোনো মানে নেই। বৃষ মনে করে যে, সে মোটেও জেদি নয়, সে হলো ধৈর্যশীল। বৃষ নিজের অবস্থান ও মতামতের ক্ষেত্রে আঠার মতো লেগে থাকে। এমনকি পরিণত চিন্তাবুদ্ধি ও ধৈর্যশীলতার চমত্কার স্বাক্ষরও রাখতে সক্ষম। হিংসা বৃষের সবচেয়ে বড় দোষ। তারা নিজেরা সৃষ্টি করতে পারে, নিজেরা ভাঙতে পারে, নিজেরা বিশ্লেষণ করতে পারে। তাই তারা মেনে নিতে চায় না অন্যরাও বড় কিছু করুক। তারা চায় সবাই তাদের উপর নির্ভরশীল হোক। একগুঁয়েমি মনোভাব ষাঁড়ের একটা বড় বৈশিষ্ট্য, বৃষেরও। নিজের সাফল্যগুলো তাকে ভীষণভাবে অহংকারী করে তোলে এবং সে চায় তার উন্নয়ন যেন কেবল তার হাতে হয়।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
আপনাদের এই বছরটি খুবই ভালো কাটতে চলেছে। বহুদিন বাদে অপেক্ষার ফল পাবেন আপনারা। নিজের কাছের মানুষের কাছ থেকে কেরিয়ারের ক্ষেত্রে সাহায্য পাবেন। সবমিলিয়ে বহু ক্ষেত্রেই লাভবান হবেন আপনারা। বৃষ রাশির জাতক জাতিকাদের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালে খুবই ভালো কাটতে চলেছে যৌন জীবন। দাম্পত্য জীবনে রোম্যান্স আরও বাড়বে। সঙ্গীর থেকে প্রচুর ভালোবাসা পেয়ে থাকবেন আপনারা গোটা বছরে।এবছরের একটা বড় সময় চাপ থেকে মুক্ত হতে আপনার মূল্যবান সময় আপনার বাচ্চাদের সাথে কাটান। আপনি বাচ্চাদের উপশমকারী ক্ষমতা অনুভব করবেন। যেহেতু তারা এই পৃথিবীর সবথেকে শক্তিশালী আধ্যাত্মিক এবং আবেগপূর্ণ ব্যক্তিত্বস্বরূপ। আপনি নিজেই সতেজ অনুভব করবেন। আপনার সৃজনশীল প্রতিভা সঠিকভাবে ব্যবহার করলে অত্যন্ত লাভজনক প্রমাণিত হতে পারে। ছোট ভাই বা বোন আপনার পরামর্শ চাইতে পারে। প্রেম ইন্দ্রিয়ের সীমা অতিক্রম করে যায়, কিন্তু আপনার ইন্দ্রিয় আজ ভালবাসার উচ্ছ্বাসের অভিজ্ঞতা লাভ করবে। ২০১৯ সাল বৃষ রাশির জাতকদের জন্যও আর্থিক দিক থেকে ভালোয় মন্দয় কাটবে। একাধিক শুভ ঘটনা ঘটবে অর্থভাগ্যকে কেন্দ্র করে। এমনই দাবি জ্যোতিষশাস্ত্রবিদদের। এদিকে, আর্থিক অবস্থাএকই রকমের থাকার সম্ভাবনা ২০১৯ সাল জুড়ে। ২০১৯ সালের প্রথমার্ধ এই রাশির জাতক বা জাতিকাদের জন্য বেশ ঘটনাবহুল। প্রথমার্ধ বেশ আনন্দে কাটতে চলেছে তাঁদের। সঙ্গীর স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখুন বছরভর। যৌন সুখ থেকে সাংসারিক শান্তি, সমস্ত দিক থেকেই বছরের প্রথমার্ধ কাটবে হাসিখুশিভাবে।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
আপনাদের এই বছরটি খুবই ভালো কাটতে চলেছে। বহুদিন বাদে অপেক্ষার ফল পাবেন আপনারা। নিজের কাছের মানুষের কাছ থেকে কেরিয়ারের ক্ষেত্রে সাহায্য পাবেন। সবমিলিয়ে বহু ক্ষেত্রেই লাভবান হবেন আপনারা।

আপনার অর্থ ভাগ্য
২০১৯ সাল বৃষ রাশির জাতকদের জন্যও আর্থিক দিক থেকে ভালোয় মন্দয় কাটবে। একাধিক শুভ ঘটনা ঘটবে অর্থভাগ্যকে কেন্দ্র করে। এমনই দাবি জ্যোতিষশাস্ত্রবিদদের। এদিকে, আর্থিক অবস্থাএকই রকমের থাকার সম্ভাবনা ২০১৯ সাল জুড়ে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
বৃষ রাশির জাতক জাতিকাদের ২০১৯ সালে দাম্পত্য কলহ পরিলক্ষিত হচ্ছে। তবে 'সিঙ্গল'রা এই বছর 'মিঙ্গল' হতে পারেন! ২০১৯ সালের প্রথমার্ধ এই রাশির জাতক বা জাতিকাদের জন্য বেশ ঘটনাবহুল। প্রথমার্ধ বেশ আনন্দে কাটতে চলেছে তাঁদের। সঙ্গীর স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখুন বছরভর। যৌন সুখ থেকে সাংসসারিক শান্তি, সমস্ত দিক থেকেই বছরের প্রথমার্ধ কাটবে হাসিখুশিভাবে।


বৃষভ রাশিফল ২০১৮

এই বছর আপনি আপনার স্বভাবে কিছু আক্রমণাত্মকতা দেখা দিতে পারে যা বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিন। ধীরে ধীরে আপনার মধ্যে ইচ্ছে-শক্তির বিকাশ হবে এবং এটা যে কোন কিছু অর্জন করতে আপনাকে সাহায্য করবে। সাফল্য পাবার জন্য সারা বছর কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। কাজে কিছু হতাশার সম্ভাবনা রয়েছে। অক্টোবরের পর, আয় বৃদ্ধি পাবে এবং আপনার বৈবাহিক জীবনে সুখ লাভ হবে। ২০১৮ সালের বৃষ রাশিফল অনুসারে, কিছু ছোটো ভ্রমণ ভালো ফল দেবে, আপনি তীর্থযাত্রাতেও যেতে পারেন। সন্তানের ভালো উন্নতি হবে এবং তারা ভালো প্রদর্শন করবে। বিরোধ এবং সংঘর্ষ এড়িয়ে চলুন যা সম্পত্তির ক্ষতি করে আপনাকে অসুবিধায় ফেলতে পারে। বছরের প্রথম দুই মাস বিতর্ক বা কলঙ্ক থেকে দূরে থাকুন, এটা আপনার ভাবমূর্তি নষ্ট করবে। তবে যাইহোক, আপনি জীবনে যেকোনো প্রতিযোগিতার সম্মুখীন থাকতে প্রস্তুত থাকবেন । স্বাস্থ্যের প্রতি সচেতন হতে হবে, বিশেষ করে অতিরিক্ত খাবার খাবেন না এবং নিজের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন। আপনি আপনার জীবনসঙ্গীর সাথে বা কোনো ধর্মীয় ক্রিয়াকলাপে অর্থ খরচ করতে পারেন। সবমিলিয়ে, 2018 আপনার জন্য সামান্য থাকবে তবে আপনি অনেক নতুন জিনিস শিখবেন। আপনি সুন্দর বৈবাহিক জীবন এবং আর্থিক অবস্থা পাবেন।
প্রতিকার : উত্তম মানের ওপাল ধারণ করুন।

Gemini

may 21 - jun 20



মিথুন (২২ মে – ২১ জুন)
শুভ রং: হালকা সবুজ, আকাশি, কমলা ও লাল
শুভ সংখ্যা: ৫
পাথর: পান্না, ফিরোজা, জেড ও বেরিল
টোটকা:
শুভ দিন : বুধবার।
শুভ ধাতু : রুপা ও প্লাটিনাম।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : কুম্ভ, তুলা, সিংহ।

মিথুন রাশির জাতক
মিথুন পুরুষ বা নারীকে বেশির ভাগ সময় রক্ষণশীল হিসেবে দেখা যায়। মিথুনেরা সাধারণত অন্যদের তুলনায় আকর্ষণীয়ভাবে চিকন, লম্বা, প্রাণশক্তিপূর্ণ হয়; যদি না তাদের উপর গ্রহ-নক্ষত্রের নেতিবাচক প্রভাব থাকে। লেখালেখির সঙ্গে মিথুনের একটা অদ্ভুত যোগাযোগ রয়েছে। এই রাশি নিজেই লেখালেখির ক্ষমতাকে নিয়ন্ত্রণ করে। তাই প্রায় সব মিথুনই যেকোনো একটা বুদ্ধিদীপ্ত মন্তব্য করে বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে আরও কিছু শব্দ সহজেই জুড়ে দিতে পারে। প্রচুর সংখ্যক মিথুন আছেন; যারা বিজ্ঞাপনচিত্র, ভাষণ, প্রামাণ্য চিত্র, নাটক, বই ইত্যাদি লেখালেখির সঙ্গে জড়িত। কিন্তু বইগুলো হবে উপন্যাস, পাঠ্যবই, বাস্তবভিত্তিক কাহিনি কিংবা জীবনবৃত্তান্ত। মিথুনেরা সন্দেহবাতিক একটু বেশি, যা অনেক সময় ভারি ঝামেলার সৃষ্টি করে। তারা ভাবগম্ভীর এবং অনেক সময় তীব্র বদমেজাজি হয়। তারা অনেকটা খেয়ালি মনোভাবের। মিথুনদেরকে কোনো মানসিক ক্ষিপ্রতার চ্যালেঞ্জ করাটা সম্পূর্ণ বৃথা, কেননা তারা কথা দিয়ে নিজেদেরকে খুব ভালোই প্রমাণ করতে পারে, আর খুব সহজেই তা করতে পারে। তারা নিজের পায়ে দাঁড়ানো অবস্থায় কিংবা অন্য যেকোনো অবস্থায়ই খুব তীক্ষভাবে বিদ্রূপাত্মক হতে পারে, আর তারা চালাকিতে প্রায় সবাইকেই ছাড়িয়ে যাওয়ার সামর্থ্য রাখে। কিছু কিছু মিথুন জাতক-জাতিকা অন্য যারা ধীর-স্থিরভাবে চিন্তা করে অভ্যস্ত তাদেরকে নিজেদের ক্ষীপ্র মানসিক ক্ষমতার দ্বারা বোকা বানিয়ে কিংবা চিন্তামগ্ন করে তুলে একধরনের দুষ্টু প্রকৃতির আনন্দ উপভোগ করে থাকে। মিথুনদের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হলো দ্বৈততা। তারা দুটো কাজ একসঙ্গে খুব সহজেই করতে পারে। প্রত্যেক মিথুনের মধ্যেই নিজেদের ভেতরের আসল লক্ষ্য আর উদ্দেশ্যকে চেপে রাখার একটা দৃঢ় সংকল্প থাকে।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
২০১৯ সালে মিথুন রাশির বিবাহযোগ্য জাতক জাতিকাদের বিয়ের ক্ষেত্রে প্রাথমিক বাধা থাকলেও, তা নির্দিষ্ট সময়ে কেটে যাবে। বিবাহের ক্ষেত্রে দেরি হওয়ার যোগ দেখা যাচ্ছে। তবে বহুদিন ধরে যাঁদের বিয়ে আটকে রয়েছে তাঁরা এবছর দাম্পত্য সুখ পেতে চলেছেন! বিবাহিতদের পক্ষে বছরটি ভালো কাটবে। মিথুন রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে অর্থভাগ্যে চরম উন্নতি দেখতে চলেছেন। সারা বছর ধরেই একটি নির্দিষ্ট অঙ্কের আয় হতেই থাকবে। ক্রমেই পরিস্থিতি উন্নতির দিকে যাবে। ২০১৯ সাল আপনাদের যৌন জীবন ভালোয় মন্দয় কাটবে। গোটা বছর আপনার সঙ্গী আপনাকে ভালোবাসায় , যৌনতায় ভরিয়ে রাখবে। সঙ্গীর আদর যত্নে ভালো কাটতে চলেছে ২০১৯ সাল। মিথুন রাশির ব্যক্তিত্বদের জন্য এই বছর কেরিয়ারের দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ। কেরিয়ারে বহু গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন দেখা যাবে এই বছরে। যেকোনও পদক্ষেপ নিতে হবে সতর্কতার সঙ্গে। ভালবাসার মানুষের ভুল খুঁজে সময় নষ্ট করবেন না। কোন নতুন যৌথ উদ্যোগ এবং অংশীদারিত্বে সই করা থেকে বিরত থাকুন। মনের কথা বলতে ভয় পাবেন না। দিনটি আপনার স্ত্রী আঘাতের সঙ্গে আপনাদের সম্পর্ক উষ্ণতা পেতে পারে।আপনি পার্টিতে হীনমন্যতাইয় ভুগতে পারেন।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
মিথুন রাশির ব্যক্তিত্বদের জন্য এই বছর কেরিয়ারের দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ। কেরিয়ারে বহু গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন দেখা যাবে এই বছরে। যেকোনও পদক্ষেপ নিতে হবে সতর্কতার সঙ্গে।

আপনার অর্থ ভাগ্য
মিথুন রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে অর্থভাগ্যে চরম উন্নতি দেখতে চলেছেন। সারা বছর ধরেই একটি নির্দিষ্ট অঙ্কের আয় হতেই থাকবে। ক্রমেই পরিস্থিতি উন্নতির দিকে যাবে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
মিথুন রাশির জাতকদের প্রেমভাগ্য ২০১৯ সালে আরও সুমধুর হয়ে উঠতে চলেছে। এই বছর অনেকেই প্রেমে পড়তে পারেন। অনেকেরই বিয়ে হতে পারে এই সময়ে। ২০১৯ সালে মিথুন রাশির বিবাহযোগ্য জাতক জাতিকাদের বিয়ের ক্ষেত্রে প্রাথমিক বাধা থাকলেও, তা নির্দিষ্ট সময়ে কেটে যাবে। বিবাহের ক্ষেত্রে দেরি হওয়ার যোগ দেখা যাচ্ছে। তবে বহুদিন ধরে যাঁদের বিয়ে আটকে রয়েছে তাঁরা এবছর দাম্পত্য সুখ পেতে চলেছেন! বিবাহিতদের পক্ষে বছরটি ভালো কাটবে।


মিথুন রাশিফল ২০১৮

মিথুন রাশির জাতকদের প্রকাশ করার ক্ষমতা সারা বছর সাহায্য করবে। তবে প্রথম মাসের মধ্যে আপনি আপনার কথা-বার্তায় সংযত রাখুন নাহলে বিবাদে জড়িয়ে পড়তে পারেন। আপনি কাজের জন্য আপনার বাড়ি থেকে দূরে যেতে পারেন এবং এর জন্য আপনার ভালো উপার্জনও হতে পারে। কিন্তু, এটি ভালোবাসার মানুষজন থেকে আপনাকে দূরে রাখবে। সুতরাং, ব্যক্তিগত জীবন এবং পেশাগত জীবনের মধ্যে ভারসাম্য রাখার প্রয়োজন রয়েছে। ২০১৮তে মিথুন রাশির জ্যোতিষ গণনা অনুসারে, সন্তানদের স্বভাবে চঞ্চলতা বজায় থাকবে । কিন্তু তারা নতুন জিনিস শিখতে আগ্রহী হবে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা ভালো প্রদর্শন করবে। যদি আপনি অবিবাহিত হন ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত আপনি মনোমত জীবনসঙ্গীর সাথে বন্ধনে জড়িয়ে পড়তে পারেন। বছরের শেষ ভাগে ব্যয় অত্যধিক হতে পারে। আপনার স্বাস্থ্য ওঠাপড়া করতে পারে এবং বায়ুর রোগ, গাঁটে ব্যথা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে। ভারি খাবার খাবেন না। এই বছর ব্যবসায় অনেক লাভ পাবেন। আপনার অতীতের কঠিন পরিশ্রম পেশাগত সাফল্যের ভিত বানাবে। সর্বোপরি, এই বছর আপনাকে উন্নতি এবং সফলতার অনেক সুযোগ প্রদান করবে।
প্রতিকার : পাঁচ মুখী রুদ্রাক্ষ ধারণ করুন।

Cancer

jun 21 -jul 22



কর্কট (২২ জুন – ২২ জুলাই)
শুভ রং: হালকা সবুজ, ক্রিম, কমলা ও সাদা
শুভ সংখ্যা: ২
পাথর: পান্না, মুন্না ও মুনস্টোন
টোটকা:
শুভ দিন : সোমবার।
শুভ ধাতু : রুপা ও প্লাটিনাম
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : মীন, বৃশ্চিক, বৃষ।

কর্কট রাশির জাতক
জীবনকে পুরোপুরি উপভোগের সবগুলো পথ বুঝি কর্কটই সবচেয়ে ভালো জানে। অন্য কোনো রাশিই কর্কটের মতো এতটা কৌতুকপ্রিয় নয়। আর তার শান্ত, সুবোধ বহিরাবরণ ভেদ করে মজার মানুষটা যদি একবার দুঃসাহসিকভাবে জেগে ওঠে তাহলে তো কথাই নেই। চন্দ্রের রসিকতাবোধ সব সময়ই গভীর। এটা কখনই সস্তা কিংবা অতিরঞ্জিত নয়, কেননা মানুষের আচরণ সূক্ষ্মভাবে পর্যবেক্ষণ করে তবেই এই রসিকতা তারা করে। কর্কটের হাসি পাগল করা। আর এ হাসি অদম্যভাবে সংক্রামক। কর্কট যখন পার্টির কেন্দ্র হওয়ার ভাবাবেগে থাকে, তখন তাকে চিনে নেওয়া যায় সহজে। কর্কটের বিষণ্নতা খুবই গভীর। কর্কট তার স্বাভাবিক ভয়-ভীতিগুলো তার দুষ্টুমিভরা পাগলামি আর কৌতুক দিয়ে আচ্ছাদিত করে রাখে। কিন্তু তারপরও সেই ভয়গুলো দিনে কি রাতে তার মনের মধ্যে অনর্থক কোনো আশঙ্কা কিংবা নামহীন বিপদের শঙ্কা হয়ে ছায়ার মধ্যে জেগে থাকে। কর্কটরাই পারে কল্পনার মাধুরী মিশিয়ে সবচেয়ে সুন্দর কোনো স্বপ্ন নিয়ে তারাদের রাজ্যে ঘুরে বেড়াতে। জীবন তাদেরকে যা কিছু শিখিয়েছে কিংবা ইতিহাস মানবজাতিকে যা কিছু শিখিয়েছে, তার কোনোটাই তারা ক্ষণিকের জন্য বিস্মৃত হয় না। একজন কর্কট তার অতীতকে পোষণ করে, আর তারা সাধারণত খুবই গভীরভাবে দেশপ্রেমিক। কর্কটেরা প্রত্নতত্ত্ববিদদের মতো মানসিকতার গভীর থেকে গভীর পর্যন্ত শুধু অদ্ভুত সুন্দর সবকিছু খুঁজে চলে। প্রত্যেক কর্কটেরই অভিব্যক্তি প্রকাশের ক্ষেত্রে একটা বিস্ময়কর ক্ষমতা রয়েছে। আর কল্পনার উপর কর্কটদের নিয়ন্ত্রণ এতই মাধুর্যময় আর তাদের ভাবাবেগও এতই তীব্র যে, তারা আপনাকেও কল্পনার জগতটা দেখিয়ে দিতে পারবে। তাদের কল্পনাজুড়ে থাকে সুখ-দুঃখ, ভয়, সহানুভূতি, আনন্দ আর যন্ত্রণা। তার দ্রুত স্মৃতিচারণক্ষম মস্তিষ্ক এসব অনুভূতিগুলো সহজেই খুঁজে নেয়।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
কর্কট রাশির জাতকরা এই বছরে অর্থ থেকে চাকরি সমস্ত দিক থেকে লাভবান হতে চলেছেন। বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ আসবে। চাকরির ক্ষেত্রে ভালো প্রোমোশনের সুযোগ আসতে পারে। কর্কট রাশি কর্কট রাশির জাতক বাব জাতিকারা ২০১৯ সালে যৌন জীবনে বহু কাঙ্খিত আনন্দ উপভোগ করতে চলেছেন। যাঁরা ইতিমধ্যেই সম্পর্কের মধ্যে রয়েছেন , তাঁরা নতুন করে যৌনতাকে উপভোগ করবেন ২০১৯ এ। কর্কট রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে আর্থিক দিক থেকে কয়েকটি বিষয়ে উন্নতি দেখতে পাবেন। তবে তার সঙ্গে কেয়কটি দিকে আর্থিক অস্থিরতাও আসতে পারে,তার জন্য় আগাম সতর্ক পদক্ষেপ নিতে হবে। কর্কট রাশির জাতর বা জাতিকারা এবছর দাম্পত্য জীবনে উত্থান পতন দেখতে পাবেন। সম্পর্কে ঝামেলা বিবাদ লেগে থাকলেও তা সহজে কেটে যাবে। 'ঝগড়া-অভিমানে প্রেম বাড়ে', এই কথা মাথায় রেখে আগামী বছর উপভোগ করুন সুন্দর দাম্পত্যজীবন। বিভিন্ন অভিজ্ঞতা আপনাকে মানসিক ভাবে নাড়িয়ে দেবে, তবে আস্তে আস্তে আপনি উন্নতি করবেন । শ্রম দিলে পুরস্কৃত হবেন ।আপনার সমস্যা হল আপনার টাকা ঝুলে থাকবে- আপনি সম্ভবত বেশি খরচ করবেন অথবা মানিব্যাগ অন্য স্থানে রখবেন- অসতর্কতার কারণে কিছু লোকসান নিশ্চিত হবে। দূরের জায়গার আত্মীয়রা আজ আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
কর্কট রাশির জাতকরা এই বছরে অর্থ থেকে চাকরি সমস্ত দিক থেকে লাভবান হতে চলেছেন। বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ আসবে। চাকরির ক্ষেত্রে ভালো প্রোমোশনের সুযোগ আসতে পারে।

আপনার অর্থ ভাগ্য
কর্কট রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে আর্থিক দিক থেকে কয়েকটি বিষয়ে উন্নতি দেখতে পাবেন। তবে তার সঙ্গে কয়েকটি দিকে আর্থিক অস্থিরতাও আসতে পারে, তার জন্য আগাম সতর্ক পদক্ষেপ নিতে হবে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
কোনও পুরনো প্রেমপর্ব যদি আবারও ঠিক করতে চান, তাবলে ২০১৯ সাল হল আপনার পক্ষে সবচেয়ে ভালো সময়। সকলের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। কর্কট রাশির জাতর বা জাতিকারা এবছর দাম্পত্য জীবনে উত্থান পতন দেখতে পাবেন। সম্পর্কে ঝামেলা বিবাদ লেগে থাকলেও তা সহজে কেটে যাবে। 'ঝগড়া-অভিমানে প্রেম বাড়ে', এই কথা মাথায় রেখে আগামী বছর উপভোগ করুন সুন্দর দাম্পত্যজীবন।



কর্কট রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের কর্কট রাশিফল অনুযায়ী, আপনি উৎসাহে পরিপূর্ণ থাকবেন। নেতৃত্ব প্রদান করতে ইচ্ছুক হবেন। কিছু প্রিয়জন আপনাকে ঠিক করে বুঝতে চাইবে না তাই সম্পর্কে তিক্ততা আসতে পারে। পারিবারিক জীবন সৌহার্দ্যপূর্ণ হবে, তবে ছোটো ছোটো বাধা-বিপত্তি থাকবে। আপনি খ্যাতি লাভ করবেন এবং কর্মক্ষেত্রে আপনার সম্মান বাড়বে। সামাজিক ক্ষেত্রেও প্রতিষ্ঠা বাড়বে। স্বাস্থ্যের ওপর সম্পূর্ণ মনোযোগ হওয়া উচিৎ কারণ সংক্রামক ব্যাধি হতে পারে। বৈবাহিক জীবনে সুখের অভাব বোধ করতে পারেন। বিবাহিত জীবন বাঁচাতে খারাপ মন্তব্য এড়িয়ে চলতে হবে। ব্যয় অত্যধিক হতে পারে। আপনি উপার্জন ভালো করবেন কিন্তু অত্যধিক ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা উচিৎ। নাহলে এটা আপনার আর্থিক দিকে আসামঞ্জস্যতা সৃষ্টি করবে। শিক্ষার্থীরা এই সময় ভালো প্রদর্শন করবে এবং শিশুদের সংকল্প-শক্তি বৃদ্ধি পাবে। আপনি বিলাসবহুল জীবন যাপন করবেন কারণ সারা বছর আপনার ভাবনার কেন্দ্রবিন্দু সুখ-সুবিধা থাকবে। এর জন্য আপনি কঠোর পরিশ্রমও করবেন। সর্বোপরি, এই বছর খুবই ভালো কাটবে, কিন্তু কিছু ঝুঁকির সম্মুখীন আপনি হতে পারেন।
প্রতিকার : শ্রী যন্ত্র স্থাপন করুন এবং মাতার সেবা করুন।

Leo

jul 23 -aug 22


সিংহ (২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট)
শুভ রং: লাল, সোনালি, হলুদ চকোলেট
শুভ সংখ্যা: ১
পাথর: রুবি, পোখরাজ, প্রবাল
টোটকা:
শুভ দিন : রবিবার।
শুভ ধাতু : সোনা ও পিতল
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : ধনু, মেষ, মিথুন।

সিংহ রাশির জাতক
সিংহ অতিমাত্রায় বিশ্বাসপ্রবণ। তারা শত্রুর কথা যেমন বিশ্বাস করে, হুঙ্কার দিয়ে ওঠে, তেমনি মিত্রের কথায় বিশ্বাস করে ঝাপিয়ে পড়ে। কোনোরকম যাচাই-বাছাই করে দেখে না। একের পর এক সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে থাকে এবং অসহনীয় এক পরস্থিতি তারা নিজেরাই সৃষ্টি করে। বিচারক হিসেবে এরা ভালো নয়, কারণ গায়ের জোর ও আবেগের বশে অনেক সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে, যা উত্তম বিচারকের বৈশিষ্ট্য নয়। সবচেয়ে অদ্ভুত ব্যাপার হলো, যুক্তি দিয়ে বিবেচনা করার ক্ষেত্রে তারা বেশ পারদর্শী এবং কারও জীবনের খুঁটিনাটি সমস্যাগুলোও তারা বিচক্ষণতার সঙ্গে মোলায়েম করে তুলতে সক্ষম। তবে খুবই খারাপ হলো যে, তারা তাদের নিজের জীবনের সমস্যাগুলোকে একই রকম দক্ষতা কিংবা আরামের সঙ্গে সমাধান করতে পারে না। তারপরও এই গুণটিই তাদেরকে এত প্রত্যক্ষভাবে ভালোবাসার মানুষে পরিণত করে; তার নির্ভেজাল শ্রেষ্ঠত্ব আর চমকপ্রদ ক্ষমতাগুলো আবার যেন দুঃসাহসীভাবে একরকম শোচনীয় ও দুর্বল আত্মঅহংকারের সঙ্গে মিশে যায়। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, এই গর্বিত, মর্যাদাশালী বিড়ালটিই ভঙ্গুর? বস্তুত তাই। সে গভীরভাবে আহত হয় যদি কেউ তার জ্ঞান ও মহত্বের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন না করে। সিংহকে বশ করার জন্য আর কিছু নয়, শুধু একটু প্রশংসা করতে হবে। সিংহ যখন নিজের অধিকার ও মর্যাদা রক্ষার জন্য নিবেদিত, তখন তাকে চ্যালেঞ্জ করার জন্য একজনকে বেশ সাহসী হতে হয়। কিছু কিছু সিংহ বয়সের সঙ্গে সঙ্গে অনেক নম্র হয়ে ওঠে, কিন্তু তারা তাদের গর্বিত মস্তক কখনোই নত করে না। এই রাশির রাজকীয়তার পূর্ণ বিকাশ দেখা যায় যখন তারা আতিথেয়তায় নিয়োজিত হয়। তারা এমন একটা অনুভূতি দেবে যেন আপনি রাজকীয় প্রাসাদে আমন্ত্রিত হয়েছেন।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
সিংহ রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে দাম্পত্য জীবন সুখের সঙ্গে উপভোগ করবেন। সঙ্গীর খেয়াল রাখার ক্ষেত্রে এঁরা কোনও ভুলচুক করবেন না। তবে, ২০১৯-এ পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা আপনাদের ক্ষেত্রে প্রকট বলে দাবি করেছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা। সিংহ রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে চরম আর্থিক উন্নতি দেখতে চলেছেন। অর্থের উপর কোনও খারাপ প্রভাব পড়বে না বলেই জানা যাচ্ছে। একাধিক জায়গা থেকে আপনার অর্থ আমদানি হবে, এমনই সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। ২০১৯ সাল সিংহ রাশির জাতক জাতিকাদের পক্ষে অত্যন্ত ভালো কাটতে চলেছে যৌনজীবন ও রোম্যান্টিকতার দিক থেকে। তবে যৌন জীবন নিয়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সতর্ক পদক্ষেপ নিন, নয়তো ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে বিপদে পড়তে পারেন অনেকভাবে। এই বছর আপনাদের জন্য খুবই ইতিবাচক বছর হিসাবে প্রমাণিত হতে চলেছে। নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই বছর চাকরি জীবনে আপনাকে প্রভুত উন্নতির রাস্তা দেখাবে। পড়াশোনা থেকে চাকরি , সমস্ত দিকেই আপনি পাবেন সম্মান। বিষাদ ঝেড়ে ফেলে দিন। মনঃকষ্ট আপনাকে জড়িয়ে রেখেছে এবং আপনার উন্নতিকে ব্যাহত করছে। সন্দেহজনক আর্থিক যোজনায় প্রতাড়িত হবেন না, যেকোনও জায়গায় বিনিয়োগ অত্যন্ত যত্নে করবেন। আপনি যাঁর সাথে বাস করেন তিনি আপনার আকস্মিক এবং অনিশ্চিত আচরণে মনোক্ষুণ্ণ এবং হতাশাগ্রস্ত হতে পারেন।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
এই বছর আপনাদের জন্য খুবই ইতিবাচক বছর হিসাবে প্রমাণিত হতে চলেছে। নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই বছর চাকরি জীবনে আপনাকে প্রভুত উন্নতির রাস্তা দেখাবে। পড়াশোনা থেকে চাকরি , সমস্ত দিকেই আপনি পাবেন সম্মান।

আপনার অর্থ ভাগ্য
সিংহ রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে চরম আর্থিক উন্নতি দেখতে চলেছেন। অর্থের উপর কোনও খারাপ প্রভাব পড়বে না বলেই জানা যাচ্ছে। একাধিক জায়গা থেকে আপনার অর্থ আমদানি হবে, এমনই সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
সিংহ রাশির ব্যক্তিত্বরা প্রেমে পড়তে পারেন এই বছরে। উপযুক্ত জীবনসঙ্গীকেও এই বঠর খুঁজে পেতে পারেন এঁরা। যৌন সম্পর্কও এই বছর তুঙ্গে থাকবে। সিংহ রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে দাম্পত্য জীবন সুখের সঙ্গে উপভোগ করবেন। সঙ্গীর খেয়াল রাখার ক্ষেত্রে এঁরা কোনও ভুলচুক করবেন না। তবে, ২০১৯-এ পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা আপনাদের ক্ষেত্রে প্রকট বলে দাবি করেছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা।



সিংহ রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের সিংহ রাশির জ্যোতিষ গণনা অনুযায়ী, আপনি ধর্মীয় এবং আধ্যাত্মিক বিষয়ে আগ্রহী হবেন। তীর্থযাত্রাও করতে পারেন। জানুয়ারী ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যে ভাই-বোনের স্বাস্থ্য নিয়ে ভুগতে হতে পারে। আপনার বীরত্ব বৃদ্ধি পাবে। প্রেম জীবনে মিশ্র ফল পাবেন। একদিকে আপনি যেমন কিছু ভুল বোঝাবুঝির সম্মুখীন হবেন, তেমন অন্যদিকে ভালবাসার মানুষের ভালোবাসা উপভোগ করবেন। আপনার কাজ আপনাকে সাফল্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। যাইহোক, আপনি অলসতাকে এড়িয়ে চলবেন। বৈবাহিক জীবনে সুখ বৃদ্ধি পাবে। আপনি অনুভব করবেন যে আপনার জীবন দ্রুত এগিয়ে চলছে এবং বিভিন্ন পরিস্থিতি আপনার রাস্তায় আসবে। আপনি আর্থিক দিক দিয়ে উন্নতি করবেন। আপনার সন্তানদের অতিরিক্ত প্রচেষ্টার প্রয়োজন রয়েছে এবং আপনাকে তাদের বিশেষ যত্ন নিতে হবে। এছাড়া আপনি তাদের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করবেন। বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ খুব উজ্জ্বল। জানুয়ারী থেকে ফেব্রুয়ারী মাসের মধ্যে গর্ভবতী মহিলাদের বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিৎ। অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ের পর, পারিবারিক জীবনে ও পেশাগত জীবনে ভালো পরিবর্তন দেখতে পাবেন। সমাজেও আপনার মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে।
প্রতিকার :সোনা দিয়ে তৈরী সূর্য গলায় ধারণ করুন।

Virgo

aug 23 - sep 22



কন্যা (২৪ আগস্ট – ২৩ সেপ্টেম্বর)
শুভ রং: ধূসর, নেভি ব্লু
শুভ সংখ্যা: ৫
পাথর: পান্না, মুক্তা ও ওপাল
টোটকা:
শুভ দিন : বুধবার।
শুভ ধাতু : রুপা, প্লাটিনাম
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : মকর, বৃষ

কন্যা রাশির জাতক
কন্যার জাতক-জাতিকারা সামাজিক মেলামেশায় তেমন স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না। কন্যা হলো সতীত্বের প্রতীক, কিন্তু আক্ষরিকভাবে এটা বুঝে নেওয়া ঠিক হবে না। বিবাহিতই হোক কিংবা ব্যাচেলর, কন্যা জাতককে অনেকের মধ্যে শনাক্ত করে নেওয়াটা নেহাতই সহজ। তার একটা কারণ হলো কন্যা জাতকেরা নিশ্চুপ থাকতে পছন্দ করে। অপ্রয়োজনীয় কথাবার্তা বলার মানুষও সে নয়, বরং সে একাকী এক কোণায় স্থান নিয়েই স্বস্তিবোধ করে। কন্যারা বিড়াল, পাখি, ছোট ও অসহায় জীবজন্তু ভালোবাসে। তারা সত্যকেও ভালোবাসে, ভালোবাসে সময়ানুবর্তিতা, মিতব্যয়িতা, বিচক্ষণতা, ও স্বতন্ত্র পছন্দবোধ। তারা ঘৃণা করে লোক দেখানো আবেগ, ধুলা, অশ্লীলতা, অলসতা ও শুয়ে বসে কাটানো। তারা স্বভাবে খুবই বাস্তববুদ্ধিসম্পন্ন, তাদের মধ্যে চরম মাত্রায় বৈষম্য লক্ষ করা যায়। তারাই সত্যিকার স্বাতন্ত্র্যবাদী, তাদের আগ্রহ-উপলব্ধি তাদের আকাঙ্ক্ষাকে বাজে এবং বেদনাদায়ক ভাবনার সঙ্গে যুক্ত করে না। কন্যার গুণের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দোষও আছে অনেক। তিলকে তাল বানানো এদের সবচেয়ে বড় দোষ। কন্যা জাতককে দেখে আপনার মনে তার সম্পর্কে যে ধারণাটা প্রথমে উদ্ভব হবে, সেটা হলো সে কোনো একটা বিশেষ সমস্যায় আছে এবং সমস্যাটার সমাধানের জন্য চেষ্টা করছে। কিংবা মনে হবে সে গোপনে কোনো কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তা করছে। কন্যাদের মনে প্রাকৃতিকভাবেই দুশ্চিন্তা চলে আসে। তবে তাদের চোখে বুদ্ধিমত্তা আর চিন্তা-ভাবনার স্বচ্ছতা ঝলমল করে। তাদের অধিকাংশই অত্যন্ত আকর্ষণীয়, তাদের নাক তীক্ষ, কান, ঠোঁট সুন্দর। নিশ্চয়ই তাদের মধ্যে সৌন্দর্যের কিংবা আকর্ষণের কোনো অভাব নেই, কিন্তু কিছু কিছু খারাপ মুহূর্তে তাদের আত্মঅহংকারের ছটা এসে লাগতে পারে।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
আপনাদের জন্য ২০১৯ বছরটি ভালোয় মন্দয় কাটবে। প্রতিটি পর্ব থেকে নতুন নচুন শিক্ষা পাবেন আপনারা। এপ্রিল মাসের পর থেকে কেরিয়ারে প্রভূত উন্নতি রয়েছে, তবে পদক্ষেপ সতর্কভাবে নিতে হবে। জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আপনারা আপনাদের যৌনজীবন খুবই ভালো কাটতে চলেছে। দাম্পত্যে দুজনের বোঝাপড়া যৌনতার সঙ্গে সঙ্গেই আরও বাড়তে থাকবে। বছর যত এগোবে ততই যৌনতাকে উপভোগের মাত্রা বাড়তে থাকবে আপনাদের। কন্য়া রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে আর্থিক উন্নতির মুখ দেখতে চলেছেন। ক্রমাগাত বছর জুড়ে অর্থ আসতেই থাকবে আপনাদের কাছে। আর্থিক স্থিরতাও এই বছরে আপনারা দেখতে পাবেন ।কন্য়া রাশির জাতক বা জাতিকারা দাম্পত্যজীবনে বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। এপ্রিলের প্রথম থেকে এঁরা দাম্পত্য সুখ দেখতে পাবেন। যদিও আপনার আর্থিক অবস্থান উন্নত হয়েছে, তবুও টাকা বেরিয়ে যাওয়ায় আপনার প্রকল্পগুলির কার্যনির্বাহে বাধার সৃষ্টি করবে। সাময়িক সঙ্গীর সঙ্গে ব্যাক্তিগত ব্যাপার আলোচনা করবেন না। আজ আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির খুবই অভাব অনুভব করতে পারেন। আপনি পরোপকার ও সামাজিক কাজের দিকে আকৃষ্ট হবেন- ভালো কাজে সময় দিয়ে আপনার জীবনে অভূতপূর্ব পরিবর্তন আনতে পারেন। দিনটি আপনার বিবাহিত জীবনের ধৈর্য পরীক্ষা করবে। জিনিস আপনার নিয়ন্ত্রাধীনে রাখতে শান্ত থাকুন।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
আপনাদের জন্য আগামী বছরটি ভালোয় মন্দয় কাটবে। প্রতিটি পর্ব থেকে নতুন নচুন শিক্ষা পাবেন আপনারা। এপ্রিল মাসের পর থেকে কেরিয়ারে প্রভূত উন্নতি রয়েছে, তবে পদক্ষেপ সতর্কভাবে নিতে হবে।

আপনার অর্থ ভাগ্য
কন্যা রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে আর্থিক উন্নতির মুখ দেখতে চলেছেন। ক্রমাগাত বছর জুড়ে অর্থ আসতেই থাকবে আপনাদের কাছে। আর্থিক স্থিরতাও এই বছরে আপনারা দেখতে পাবেন ।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
কন্যারাশির জাতক বা জাতিকারা বলছেন, সমস্ত কিছু ঠিক করার সময় এটিই। সম্পর্কে কোনও চিড় ধরে থাকলে ২০১৯ সালে তা ঠিক হয়ে যাবে। ২০১৯ সালে বেশ কয়েকটি ভালো ঘটনা আপনার প্রেমভাগ্যের জন্য অপেক্ষা করছে। কন্যা রাশির জাতক বা জাতিকারা দাম্পত্যজীবনে বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। এপ্রিলের প্রথম থেকে এঁরা দাম্পত্য সুখ দেখতে পাবেন।



কন্যা রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের কন্যা রাশিফল অনুসারে, এটি আপনার জন্য উচ্চ শিখরে পৌঁছানোর বছর। আপনার কাছে কোন ভালো সুযোগ আসবে যাতে আপনি ভালো আর্থিক লাভ পাবেন। আপনার সামাজিক ক্ষেত্র খুবই সক্রিয় হবে এবং সামাজিক ভাবে আপনি প্রতিষ্ঠা লাভ করবেন। বন্ধু এবং প্রিয়জনের সাথে ভালো সময় কাটাবেন। শিক্ষার্থীরা মনোযোগের অভাব বোধ করবে। তাই কঠিন পরিশ্রম করলে তারা সাফল্য পেতে পারে। আপনাকে আপনার সন্তানের বেশি করে যত্ন নিতে হবে, কারণ কিছু স্বাস্থ্য জনিত সমস্যা তাদের দেখা দিতে পারে। পেশাগত জীবনের জন্য সময়টা ভালো। আপনার বিভিন্ন কাজে সাফল্য পাবেন। অনেক দিনের কোন ইচ্ছা পূরণ হতে পারে। সারা বছর ভালো আর্থিক লাভ হবে। জানুয়ারীতে কিছু অপ্রত্যাশিত লাভ আসতে পারে। অক্টোবরের পর, এই বৃদ্ধি আরও বাড়বে। আপনি আপনার জীবনসঙ্গীর মাধ্যমে লাভ পেতে পারেন, কিন্তু তাঁর শক্তির অভাব দেখা দিতে পারে, তিনি কোনো স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বাধার সম্মুখীন হতে পারেন। যাইহোক, পরিবার থেকে আপনি সম্পূর্ণ সহযোগিতা পাবেন। কাজের জন্য পরিবার থেকে দূরে যেতে হতে পারে। পরিবারে কোন মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান হতে পারে। নতুন অতিথি আসারও সম্ভাবনা আছে। সবমিলিয়ে, এই বছর সব দিক দিয়ে লাভজনক হবে। আপনাকে শুধু বিবাদ থেকে দূরে থেকে পরিবারে শান্তি বজায় রাখতে হবে।
প্রতিকার : ঘরে কর্পূরের প্রদীপ জ্বালান।

Libra

sep 23 -oct 22



তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর – ২৩ অক্টোবর)
শুভ রং: সবুজ, ফিরোজা, আকাশি ও সাদা
শুভ সংখ্যা: ৬
পাথর: পান্না, ফিরোজা, ওপাল, ক্যাটস আই
টোটকা:
শুভ দিন : শুক্রবার।
শুভ ধাতু : তামা ও ব্রোঞ্জ
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : কুম্ভ, মিথুন

তুলা রাশির জাতক
তুলা জাতকেরা খুবই বুদ্ধিমান। একই সঙ্গে তারা চরমভাবে সরল। সহজেই এরা অন্যের প্রতারণার শিকার হয়। তারা কথা বলে আপনার কান পাকিয়ে ফেলবে, কিন্তু একই সঙ্গে তারা আপনার খুব ভালো শ্রোতাও হবে। তুলারা অস্থির প্রকৃতির মানুষ। কিন্তু কোনো কাজে কদাচিত্ তারা তাড়াহুড়ো করে। কথাগুলো শুনে বিভ্রান্ত হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু এই রাশির কার্যকলাপ, বৈশিষ্ট্যের মধ্যে এত হতাশাব্যঞ্জক অসামঞ্জস্য কিংবা ধারাবাহিক স্থিরতার অভাব রয়েছে যে অন্য মানুষ তো বটেই, তারা নিজেরাও একেক সময় নিজেদের আচরণে অবাক হয়ে যায়। এই রাশির জাতকের ব্যক্তিত্বের মধ্যে এ রকম একটা সমন্বয় পাওয়া যায়, কিন্তু সেটা দিনের অর্ধেকটার জন্য। দিনের বাকি অর্ধেকটা সময় সে বিরক্তিকর, ঝগড়াটে, জিদি, অস্থির, হতাশ ও বিভ্রান্ত হয়ে থাকে। এমন কোনো তুলা জাতককেই খুঁজে পাওয়া যাবে না, যার হাসিটা এক টুকরো নরম সাদা মেঘের মতো সুশ্রী নয়। তুলারা মানুষ ভালোবাসে, কিন্তু অনেক মানুষের ভিড় তাদের অপছন্দ। শান্তির পায়রাদের মতোই সুশীলভাবে তারা অন্যদের ঝগড়া-বিবাদে মধ্যস্থতা ও মীমাংসার জন্য এগিয়ে যায়। তারা সুশীল এবং তাদের সঙ্গ আনন্দদায়ক। অনেক মানুষই আপনাকে বলবে যে, তুলা হলো ভালোবাসা, সৌন্দর্য, মিষ্টতা, আলোর রাশি। সেটা ভালো, যতক্ষণ এভাবে চলছে। কিন্তু গন্তব্যে পৌঁছাবার আগেই থেমে যাওয়া তার অভ্যাস। তুলার হাসি শক্ত একটা চকলেটকেও নিমিষে গলিয়ে দিতে পারে। আর যখন এই হাসি আপনার উপর পূর্ণ প্রভাব বিস্তার করে, তখন একদম বদখত মুখটিকেও আপনার চমত্কার সুন্দর বলে মনে হবে। প্রথমে তারা কথার ঝড় বইয়ে দেবে এবং একাই কথা বলে পুরো আলোচনাটা মুখর করে রাখবে। প্রশংসনীয় আগ্রহের সঙ্গে শ্রোতারাও মনোযোগ দিয়ে শুনবে। বলাবাহুল্য ছন্দপতনেও কোনো কমতি নেই তাদের। তুলা মাঝে মাঝে ছ্যাবলামি করে বসে, যা তার বড় দোষ। তারা অনেক সময় মানসম্মানের ধার ধারে না, বরং উল্টাপাল্টা কথা বলে বসে। সঙ্গে উল্টাপাল্টা কাজও করে। এর ফলে বেশ ঝামেলা পোহাতে হয়।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
২০১৯ সালে বিয়ে থেকে দাম্পত্য জীবন, বিভিন্ন দিকে সতর্ক পদক্ষেপ ফেলুন। বছরের প্রথম দিকে আপনার সঙ্গী আপনার ওপর রেগে থাকতে পারে বিভিন্ন কারণে।তবে সেই রাগ ভাঙিয়ে প্রেমের গভীরতায় মিশে যেতে পারলে কেল্লাফতে! তুলা রাশির জাতক জাতিকাদের আগামী বছরে আর্থিত স্থিরতা বজায় থাকবে। বেশ কিছু পদক্ষেপ সতর্কতার সঙ্গে নিতে হবে। আর্থিক দিক থেকে আপনার নিরাপত্তা আরও বাড়বে। আর্থিক স্থায়িত্ব থাকায় জীবন অনেকটাই আরামদায়ক হয়ে উঠবে। বহু দিক থেকে অর্থ আসায়া, জীবনযাত্রার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। তুলা রাশির জাতক ও জাতিকারা যৌন জীবনের ক্ষেত্রে একটু সমস্যায় থাকতে পারেন ২০১৯ সালে। তবে এ সম্পর্কে আপনার ইতিবাচক মনোভাব আপনাকে অনেকটাই এগিয়ে নিয়ে যাবে। তবে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়াটা খুবই দরকরা এই যৌনসম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। উত্থান ও পতনের মধ্য দিয়ে এই বছরটি কেরিয়ারকের দিক থেকে কাটতে চলেছে। সমাজে ব্যাপকভাবে সম্মান বাড়তে চলেছে আপনাদের, আর তা আসবে চাকরি ক্ষেত্রে উন্নতির জন্যই। তবে উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আর্থিক দিক থেকে কিছুটা সমস্যা আসতে পারে। চাকরির টেনশনে ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা তৈরি হতে পারে!

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
উত্থান ও পতনের মধ্য দিয়ে এই বছরটি কেরিয়ারকের দিক থেকে কাটতে চলেছে। সমাজে ব্যাপকভাবে সম্মান বাড়তে চলেছে আপনাদের, আর তা আসবে চাকরি ক্ষেত্রে উন্নতির জন্যই। তবে উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আর্থিক দিক থেকে কিছুটা সমস্যা আসতে পারে। চাকরির টেনশনে ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা তৈরি হতে পারে!

আপনার অর্থ ভাগ্য
তুলা রাশির জাতক জাতিকাদের আগামী বছরে আর্থিত স্থিরতা বজায় থাকবে। বেশ কিছু পদক্ষেপ সতর্কতার সঙ্গে নিতে হবে। আর্থিক দিক থেকে আপনার নিরাপত্তা আরও বাড়বে। আর্থিক স্থায়িত্ব থাকায় জীবন অনেকটাই আরামদায়ক হয়ে উঠবে। বহু দিক থেকে অর্থ আসায়া, জীবনযাত্রার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
২০১৯ সালে আসতে চলেছে ভালো কিছু খবর। তুলা রাশির জাতক-জাতিকারা তৈরি হন! কোনও ভেঙে যাওয়া দাম্পত্য এই বছর জো়ডা লাগতে পারে। আগামী ২০১৯ সাল অনেকেরই প্রেমভাগ্যে দাম্পত্য জীবনের শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। ২০১৯ সালে বিয়ে থেকে দাম্পত্য জীবন, বিভিন্ন দিকে সতর্ক পদক্ষেপ ফেলুন। বছরের প্রথম দিকে আপনার সঙ্গী আপনার ওপর রেগে থাকতে পারে বিভিন্ন কারণে।তবে সেই রাগ ভাঙিয়ে প্রেমের গভীরতায় মিশে যেতে পারলে কেল্লাফতে!




তুলা রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের তুলা রাশিফল অনুযায়ী, বছরের শুরু দীপ্তিময় হবে। কিন্তু ব্যবহারে আক্রমণতা থাকবে যাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। বৈবাহিক এবং পারিবারিক জীবনে সুখ-শান্তির জন্য এটা দরকার। জানুয়ারী থেকে মার্চ পর্যন্ত স্বাস্থ্য সম্পর্কিত কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। কথাবার্তা ভেবে-চিন্তে বলা উচিৎ, নাহলে কেউ আপনার কথার জন্য আঘাত পেতে পারে। এই বছর কর্মক্ষেত্রে বিচার মূর্ত রূপ নেবে যা আপনার জন্য অনুকূল হবে। অলসতা থেকে দূরে থাকুন। সহকর্মীদের ব্যবহার সাধারণ থাকবে। আপনাকে আপনার ক্ষমতার প্রয়োগ করতে হবে। জানুয়ারী থেকে মার্চ পর্যন্ত আয় বৃদ্ধি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর আপনার প্রচেষ্টা নতুন ক্ষেত্রের দরজা খুলবে। পারিবারিক জীবনে সন্তোষ এবং সুখের অভাব অনুভব করতে পারেন। আপনি নিজেকে পরিজনদের থেকে দূরে মনে করতে পারেন। এটাও হতে পারে যে আপনি পরিবারকে ঠিক-ঠাক সময় দিতে পারবেন না। কিছু ছোটো এবং বড় যাত্রা হতে পারে। সন্তানরা আনন্দিত থাকবে এবং জীবনের মজা ওঠাবে। শিক্ষার্থীদের কঠিন পরিশ্রম করতে হবে এবং তারা তার ফলও পাবে। মার্চের পর বিবাহিত জীবন ভালো হবে। সব মিলিয়ে, এই বছর আপনার জন্য ভালোই থাকবে। আপনাকে আয়ের নতুন পথ খোঁজার জন্য মনোযোগ দিতে হবে।
প্রতিকার : মাতা মহালক্ষ্মীর আরাধনা করুন এবং ছোটো কন্যাদের পূজা করুন।

Scorpio

oct 23 - nov 21



তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর – ২৩ অক্টোবর)
শুভ রং: সবুজ, ফিরোজা, আকাশি ও সাদা
শুভ সংখ্যা: ৬
পাথর: পান্না, ফিরোজা, ওপাল, ক্যাটস আই
টোটকা:
শুভ দিন : শুক্রবার।
শুভ ধাতু : তামা ও ব্রোঞ্জ
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : কুম্ভ, মিথুন

তুলা রাশির জাতক
তুলা জাতকেরা খুবই বুদ্ধিমান। একই সঙ্গে তারা চরমভাবে সরল। সহজেই এরা অন্যের প্রতারণার শিকার হয়। তারা কথা বলে আপনার কান পাকিয়ে ফেলবে, কিন্তু একই সঙ্গে তারা আপনার খুব ভালো শ্রোতাও হবে। তুলারা অস্থির প্রকৃতির মানুষ। কিন্তু কোনো কাজে কদাচিত্ তারা তাড়াহুড়ো করে। কথাগুলো শুনে বিভ্রান্ত হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু এই রাশির কার্যকলাপ, বৈশিষ্ট্যের মধ্যে এত হতাশাব্যঞ্জক অসামঞ্জস্য কিংবা ধারাবাহিক স্থিরতার অভাব রয়েছে যে অন্য মানুষ তো বটেই, তারা নিজেরাও একেক সময় নিজেদের আচরণে অবাক হয়ে যায়। এই রাশির জাতকের ব্যক্তিত্বের মধ্যে এ রকম একটা সমন্বয় পাওয়া যায়, কিন্তু সেটা দিনের অর্ধেকটার জন্য। দিনের বাকি অর্ধেকটা সময় সে বিরক্তিকর, ঝগড়াটে, জিদি, অস্থির, হতাশ ও বিভ্রান্ত হয়ে থাকে। এমন কোনো তুলা জাতককেই খুঁজে পাওয়া যাবে না, যার হাসিটা এক টুকরো নরম সাদা মেঘের মতো সুশ্রী নয়। তুলারা মানুষ ভালোবাসে, কিন্তু অনেক মানুষের ভিড় তাদের অপছন্দ। শান্তির পায়রাদের মতোই সুশীলভাবে তারা অন্যদের ঝগড়া-বিবাদে মধ্যস্থতা ও মীমাংসার জন্য এগিয়ে যায়। তারা সুশীল এবং তাদের সঙ্গ আনন্দদায়ক। অনেক মানুষই আপনাকে বলবে যে, তুলা হলো ভালোবাসা, সৌন্দর্য, মিষ্টতা, আলোর রাশি। সেটা ভালো, যতক্ষণ এভাবে চলছে। কিন্তু গন্তব্যে পৌঁছাবার আগেই থেমে যাওয়া তার অভ্যাস। তুলার হাসি শক্ত একটা চকলেটকেও নিমিষে গলিয়ে দিতে পারে। আর যখন এই হাসি আপনার উপর পূর্ণ প্রভাব বিস্তার করে, তখন একদম বদখত মুখটিকেও আপনার চমত্কার সুন্দর বলে মনে হবে। প্রথমে তারা কথার ঝড় বইয়ে দেবে এবং একাই কথা বলে পুরো আলোচনাটা মুখর করে রাখবে। প্রশংসনীয় আগ্রহের সঙ্গে শ্রোতারাও মনোযোগ দিয়ে শুনবে। বলাবাহুল্য ছন্দপতনেও কোনো কমতি নেই তাদের। তুলা মাঝে মাঝে ছ্যাবলামি করে বসে, যা তার বড় দোষ। তারা অনেক সময় মানসম্মানের ধার ধারে না, বরং উল্টাপাল্টা কথা বলে বসে। সঙ্গে উল্টাপাল্টা কাজও করে। এর ফলে বেশ ঝামেলা পোহাতে হয়।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
২০১৯ সালে বিয়ে থেকে দাম্পত্য জীবন, বিভিন্ন দিকে সতর্ক পদক্ষেপ ফেলুন। বছরের প্রথম দিকে আপনার সঙ্গী আপনার ওপর রেগে থাকতে পারে বিভিন্ন কারণে।তবে সেই রাগ ভাঙিয়ে প্রেমের গভীরতায় মিশে যেতে পারলে কেল্লাফতে! তুলা রাশির জাতক জাতিকাদের আগামী বছরে আর্থিত স্থিরতা বজায় থাকবে। বেশ কিছু পদক্ষেপ সতর্কতার সঙ্গে নিতে হবে। আর্থিক দিক থেকে আপনার নিরাপত্তা আরও বাড়বে। আর্থিক স্থায়িত্ব থাকায় জীবন অনেকটাই আরামদায়ক হয়ে উঠবে। বহু দিক থেকে অর্থ আসায়া, জীবনযাত্রার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। তুলা রাশির জাতক ও জাতিকারা যৌন জীবনের ক্ষেত্রে একটু সমস্যায় থাকতে পারেন ২০১৯ সালে। তবে এ সম্পর্কে আপনার ইতিবাচক মনোভাব আপনাকে অনেকটাই এগিয়ে নিয়ে যাবে। তবে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়াটা খুবই দরকরা এই যৌনসম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। উত্থান ও পতনের মধ্য দিয়ে এই বছরটি কেরিয়ারকের দিক থেকে কাটতে চলেছে। সমাজে ব্যাপকভাবে সম্মান বাড়তে চলেছে আপনাদের, আর তা আসবে চাকরি ক্ষেত্রে উন্নতির জন্যই। তবে উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আর্থিক দিক থেকে কিছুটা সমস্যা আসতে পারে। চাকরির টেনশনে ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা তৈরি হতে পারে!

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
উত্থান ও পতনের মধ্য দিয়ে এই বছরটি কেরিয়ারকের দিক থেকে কাটতে চলেছে। সমাজে ব্যাপকভাবে সম্মান বাড়তে চলেছে আপনাদের, আর তা আসবে চাকরি ক্ষেত্রে উন্নতির জন্যই। তবে উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে আর্থিক দিক থেকে কিছুটা সমস্যা আসতে পারে। চাকরির টেনশনে ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা তৈরি হতে পারে!

আপনার অর্থ ভাগ্য
তুলা রাশির জাতক জাতিকাদের আগামী বছরে আর্থিত স্থিরতা বজায় থাকবে। বেশ কিছু পদক্ষেপ সতর্কতার সঙ্গে নিতে হবে। আর্থিক দিক থেকে আপনার নিরাপত্তা আরও বাড়বে। আর্থিক স্থায়িত্ব থাকায় জীবন অনেকটাই আরামদায়ক হয়ে উঠবে। বহু দিক থেকে অর্থ আসায়া, জীবনযাত্রার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
২০১৯ সালে আসতে চলেছে ভালো কিছু খবর। তুলা রাশির জাতক-জাতিকারা তৈরি হন! কোনও ভেঙে যাওয়া দাম্পত্য এই বছর জো়ডা লাগতে পারে। আগামী ২০১৯ সাল অনেকেরই প্রেমভাগ্যে দাম্পত্য জীবনের শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। ২০১৯ সালে বিয়ে থেকে দাম্পত্য জীবন, বিভিন্ন দিকে সতর্ক পদক্ষেপ ফেলুন। বছরের প্রথম দিকে আপনার সঙ্গী আপনার ওপর রেগে থাকতে পারে বিভিন্ন কারণে।তবে সেই রাগ ভাঙিয়ে প্রেমের গভীরতায় মিশে যেতে পারলে কেল্লাফতে!




বৃশ্চিক রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের বৃশ্চিক রাশিফলের মতে, এই বছর কিছু চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসবে। যদি আপনি দৃঢ়তার সাথে এটাকে নিতে পারেন তাহলে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবেন। জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আপনাকে স্বাস্থ্য নিয়ে সজাগ থাকতে হবে। এরপর স্বাস্থ্যের উন্নতি হবে এবং শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। বিরোধীদের জয় করবেন। এই বছর বিশেষত অক্টোবর পর্যন্ত আর্থিক দিক দিয়ে সচেতন থাকুন। অত্যধিক ব্যয় আপনার অর্থনৈতিক অবস্থাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। অক্টোবরের পর, দক্ষতার সাথে ভালো ফলাফল দেখা যাবে। তবে বিনিয়োগ বুঝে-শুনে করতে হবে। এই বছর ভালো উপার্জন পাবার জন্য কঠোর পরিশ্রম করার জন্য তৈরি থাকুন। উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশ যেতে চান যারা তাদের জন্য এই সময় খুব ভালো। সন্তানরা জীবন উপভোগ করবে,তবে তাদের একাগ্রতার সমস্যার সাথে সংগ্রাম করতে হতে পারে। পারিবারিক জীবনে সাদৃশ্য আসবে। বিবাহিত জীবন সুখময় হবে। জীবনসাথী আপনার সব প্রচেষ্টাতে উদ্যোগ নেবে এবং সমর্থন করবে। কর্মক্ষেত্র একটু ঝুঁকিপূর্ণ কিন্তু প্রগতিশীল হবে। সবমিলিয়ে এই বছর আপনি মিশ্র ফলাফল দেখতে পাবেন।
প্রতিকার : সরষের তেল দান করুন এবং প্রবাল ধারণ করুন।

Sagittarius

nov 22 - dec 21




ধনু (২৩ নভেম্বর – ২১ ডিসেম্বর)
শুভ রং: হলুদ, বেগুনি, ক্রিম
শুভ সংখ্যা: ৩
পাথর: এমিথিস্ট, পোখরাজ
টোটকা:
শুভ দিন : বৃহস্পতিবার।
শুভ ধাতু : রুপা, প্লাটিনাম।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : মেষ, সিংহ, ধনু।

ধনু রাশির জাতক
ধনুরা সাধারণত অস্থির প্রকৃতির। তারা এক জায়গায় স্থির হয়ে দাঁড়াতে বা বসতে ঘৃণাবোধ করে। যেকোনো পার্টিতে যান এবং সেখানে সবচেয়ে প্রাণবন্ত দলটিকে লক্ষ্য করুন। হাসিখুশি-আনন্দে আপ্লুত যে মানুষটি ওখানে বসে আছে, সে একজন ধনু এবং সে একটু আগেই এমন একটি কথা বলেছে যে সবাই স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কী ঘটেছে তা সম্পর্কে তার বিন্দুমাত্র ধারণা নেই। যখন সে তার বক্তব্য নিয়ে ঘটিত স্তব্ধতার কারণ অনুধাবন করতে পারবে, তখন অবশ্য তাকে কিছুটা হতভম্ব মনে হবে এবং দলটিতে তার চারপাশের মানুষগুলোকে দেখে মনে হবে যেন তারা এক একটি ধারালো ছুরির ফলা। মুখে একটা প্রফুল্ল হাসি এনে ধনু এমন একটা মন্তব্য করে বসতে পারে যা কেউ কল্পনাও করেননি। সেক্ষেত্রে ধনুর বন্ধুদেরকে বলছি, নিজের মেজাজ ঠাণ্ডা রাখুন। পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। কিন্তু ভাববেন না সে আসলেই কাউকে ইচ্ছে করে কষ্ট দিতে চায়। না, মনের ভেতরে তার আপনার জন্য একটা যত্নের জায়গা তৈরি আছে। ধনুর দৃষ্টি চড়ুইয়ের দৃষ্টিশক্তির মতোই প্রখর ও উজ্জ্বল। ধনুদের মধ্যে জটিলতা কিংবা ক্ষুদ্রতার ছিটে ফোঁটা মাত্র নেই। সে নিষ্কলুষভাবে তার কষ্টদায়ক কথাগুলো বলে ফেলে। সে যে কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা দিতেও ছাড়ে না, সেটা আসলে ঘা সারাতে গিয়েও তার অদক্ষতাই তুলে ধরে। অধিকাংশ ধনুই আন্তরিকভাবে চায় যে আপনি প্রাণবন্ত হয়ে উঠুন। অন্তত এটাই তারা করতে চেষ্টা করে। কিন্তু নিজের সদিচ্ছাকে ফলাতে গিয়ে প্রায়ই তারা অঘটন ঘটিয়ে বসে। বহির্মুখীই হোক কিংবা আত্মকেন্দ্রিক, ধনুরা সবসময়ই হূদয়কে উদ্দীপ্ত করতে পছন্দ করে। সেই সব দুর্লভ কিছু ধনু যারা তেমন একটা কথাবার্তা বলে না, তারা হয়তো মনে মনে এমন চমত্কার কোনো পরিকল্পনা করছে যেটা বিশ্বকে চমকে দিতে পারে। তার জিহ্বা যখন স্থির, তখন তার মস্তিষ্ক আরও ব্যস্ত। একজন ধনু যখন সরাসরি তার লক্ষ্যে দৃষ্টি দেয়, তখন সে এতটাই উঁচুতে তীর ছুড়তে পারে, যেখানে মানুষের দৃষ্টিশক্তি পৌঁছতে পারে না। সেখানেই তার স্বপ্নগুলো সব সত্যি হয়ে যায়।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
ধনু রাশির জাতক বা জাতিকারা যৌনতায় এই বছরে ভরিয়ে রাখবেন নিজেরে সঙ্গীকে। আপনাকে পেয়ে আপনার সঙ্গী অত্যন্ত সুখী হবেন। রোম্যান্টিকতা থেকে যৌনতা সমস্ত কিছুতেই এই বছর আপমনার খুবই ভালো কাটবে। ২০১৯ আপনাদের জন্য আর্থিক দিক তেকে উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে যাবে। উপার্জন ও খরচের মধ্যে সঠিক ভারসাম্য ধরে রাখতে হবে। নয়তো একাধিক আর্থিক বিপদের মধ্যে পড়ে যেতে পারেন আপনি। তবে বছরের মধ্যভাগ থেকে আর্থিক উন্নতি দেখা যেতে শুরু করবে। ধনু রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে নিজেদের দাম্পত্য জীবনে বহু সুখ সমৃদ্ধি নিয়ে আসবেন। তবে বাইরোর কারোর মদতে দাম্পত্য সুখে ক্ষতিসাধন হতে পারে বলে মনে করছেন বহু জ্যোতিষবিদ। ২০১৯ সা জুড়ে একাধিক ভালো সুযোগ পেতে চলেছেন আপনি। সুযোগ গাতছাড়া করলে হাত কামড়াতে হবে! ফলে বুঝে শুনে কেরিয়ারের দিক থেকে সুঠাম পদক্ষেপ নিতে হবে এই বছর। এমনই দাবি বহু জ্যোতিষবিদদের।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
২০১৯ সাল জুড়ে একাধিক ভালো সুযোগ পেতে চলেছেন আপনি। সুযোগ গাতছাড়া করলে হাত কামড়াতে হবে! ফলে বুঝে শুনে কেরিয়ারের দিক থেকে সুঠাম পদক্ষেপ নিতে হবে এই বছর। এমনই দাবি বহু জ্যোতিষবিদদের।

আপনার অর্থ ভাগ্য
২০১৯ আপনাদের জন্য আর্থিক দিক তেকে উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে যাবে। উপার্জন ও খরচের মধ্যে সঠিক ভারসাম্য ধরে রাখতে হবে। নয়তো একাধিক আর্থিক বিপদের মধ্যে পড়ে যেতে পারেন আপনি। তবে বছরের মধ্যভাগ থেকে আর্থিক উন্নতি দেখা যেতে শুরু করবে।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
ধনু রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে প্রেমজীবনে আমূল পরিবর্তন দেখতে পাবেন। নতুন কোনও সম্পর্কের সূচনা হতে পারে এই বছর। ধনু রাশির জাতক জাতিকারা ২০১৯ সালে নিজেদের দাম্পত্য জীবনে বহু সুখ সমৃদ্ধি নিয়ে আসবেন। তবে বাইরোর কারোর মদতে দাম্পত্য সুখে ক্ষতিসাধন হতে পারে বলে মনে করছেন বহু জ্যোতিষবিদ।



ধনু রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সালের ধনু রাশিফলের গণনা অনুযায়ী, এই বছর আপনি জীবনে উন্নতির জন্য অনেক সুযোগ পাবেন। আপনার সংকল্পের দৃঢ়তা আপনাকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে। মার্চ মাস পর্যন্ত আয় বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর মে মাস পর্যন্ত ব্যয় বৃদ্ধি হতে পারে, কিন্তু তারপরে পুনরায় আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। সুতরাং, টাকা-পয়সার চিন্তা করবেন না। আয়ের নতুন উৎস খোঁজার দিকে আপনার প্রবণতা থাকবে এবং একাধিক উৎস থেকে অর্থ উপার্জন করতে সফল হবেন। শনিদেব কঠোর পরিশ্রম করার জন্য প্রেরণা দেবেন। তবে, কাজে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ব্যস্ততা ভালো নয়, এবং আপনাকে নিজের স্বাস্থ্যের দিকেও নজর দিতে হবে। মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত কিছু কঠিন পরিস্থিতি দেখা দিতে পারে এবং অক্টোবরের পর আপনি স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। সাবধানে গাড়ি চালাবেন। সন্তানরা পরিশ্রমী হবে এবং শিক্ষার্থীরা ভালো প্রদর্শন করবে। পারিবারিক জীবন সৌহার্দ্যপূর্ণ হবে, কিছু অনিয়মিত সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাইহোক, কথাবার্তায় সংযত হন নাহলে সম্পর্কে অশান্তি হতে পারে। বিবাহিত জীবন সুখময় থাকবে, কিন্তু জীবনসঙ্গীর স্বাস্থ্য আপনাকে চিন্তায় ফেলতে পারে। প্রেম জীবন শক্তিশালী হবে। আপনি বিরোধীদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে সফল হবেন। সবমিলিয়ে, বছর ভালো হবে কিন্তু স্বাস্থ্য নিয়ে সতর্ক থাকবেন।
প্রতিকার : হনুমান চালিশা পাঠ করুন।

Capricorn

dec 22 - jan 19



মকর (২২ ডিসেম্বর – ২০ জানুয়ারি)
শুভ রং: নীল, চকোলেট, ক্রিম, সবুজ
শুভ সংখ্যা: ৮
পাথর: ইন্দ্রনীলা, এমিথিস্ট, রক্ত প্রবাল, গোমেদ
টোটকা:
শুভ দিন : শনিবার।
শুভ ধাতু : লোহা, সীসা।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : বৃষ, কন্যা, মীন ও বৃশ্চিক।

মকর রাশির জাতক
মকররা দায়িত্ব এবং কর্তব্যবোধ মেনে চলতে শিখেছে আর হতাশাকেও সহ্য করে থাকতে জানে। কিছু কিছু মকরের মধ্যে নিজের উচ্চাকাঙ্ক্ষা লুকিয়ে রাখার ব্যাপারে অসতর্কতা দেখা যেতে পারে। এদেরকে শীর্ষপদে অভিষিক্ত না করা হলে কাজ করার ব্যাপারে অস্বীকৃতি জানায়। তখন সে জেদি মকর হয়ে ওঠে। সে চায় যে, মইয়ের সবচেয়ে উপরের তাকটাতেই সে দাঁড়াবে! কেননা সেখানে দাঁড়ানোর যোগ্যতা কেবল তারই আছে। শনি-শাসিত মকরের মাঝে একটা বিষণ্নতা লক্ষ করা যায়। এদের মাঝে একটা ক্ষীণ আভাস আর গাম্ভীর্যের সমন্বয় লক্ষ করা যায়। তাদের কেউই শনির প্রভাব থেকে মুক্ত নয়। এ কারণে তাদের মধ্যে খুবই নিয়মানুবর্তিতা এবং আত্ম-অস্বীকৃতির প্রবণতা লক্ষ করা যায়। তারা অবিরত অপমান, চাপ ও হতাশার বোঝা হজম করে চলে। মকররা তাদের খাড়া এবং সুন্দর আকৃতির নাকটাকে অন্যের ব্যাপারে গলায় না। সাধারণত তারা নিজেদের ব্যাপারেই নিমগ্ন থাকতে বেশি পছন্দ করে। তারা হয়তো যেচে পড়ে আপনাকে পরামর্শ দিতে যাবে না, কিন্তু আপনি যদি স্বেচ্ছায় তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞানের ভিত্তিতে কোনো পরামর্শ শুনতে চান তাহলে তারা তাদের পরামর্শ দিতে মোটেও দ্বিধা করবে না। মকরের সবচেয়ে বড় গুণ তারা আন্দাজে কোনো কাজ করে না বা করতে চায় না। সুনির্দিষ্ট ফল চায়, কোনো কাজে নামার আগে সুচিন্তিতভাবে সে কাজের পরিণাম যাচাই করে তবেই নামে। যেসব জায়গায় নিজের যোগ্যতাবলে উপরে ওঠার সুযোগ আছে এদের টার্গেট সেসব জায়গায় প্রবেশ করা। বস হিসেবে এরা দারুণ সফল। মকর জাতক ও জাতিকাদের অধিকাংশেরই ত্বক হয় খুব সংবেদনশীল। স্নায়ুবিক চাপের দরুণ সৃষ্ট ফুটি ফুটি, অ্যালার্জি, চামড়া ওঠা এবং ত্বকের রুক্ষতা, ঘামের অস্বাভাবিকতা, অ্যাকনি এবং বড় লোমকূপের সমস্যায় তাদের ভুগতে হতে পারে। শরীরের সঙ্গে মানানসই নয় এমন খাবার গ্রহণে এবং মানসিক চাপের ফলে তাদের পরিপাকে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তারা গভীর চিন্তাশীল মানুষ। কাজের ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিকগুলো তারা আগেভাগেই বুঝে ফেলতে পারে। শিক্ষা ও জ্ঞানের প্রতি মকরের আকর্ষণ দুর্নিবার।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
বহুদিন বাদে কেরিয়ারে ব্যাপক ভালো সময় আসতে চলেছে। আপনার বহুদিনের পরিশ্রমের ফল এই বছর আপনি পেতে পারেন, যদি সঠিক পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যান। বাস্তববাদী চিন্তা করে তবেই কেরিয়ারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা। মকর রাশির জাতক বা জাতিকারা যৌনতাকে প্রেমের মোড়কে তুলে ধরবেন তাঁদের সঙ্গীর কাছে।তবে যৌন জীবন ঘিরে ২০১৯ সালে একাধিক বাধা বিপত্তির সম্ভাবনা রয়েছে আপনার। বছরের মাঝখানে কিছুটা সমস্যা বাড়তে পারে। বহুদিন বাদে কেরিয়ারে ব্যাপক ভালো সময় আসতে চলেছে। আপনার বহুদিনের পরিশ্রমের ফল এই বছর আপনি পেতে পারেন, যদি সঠিক পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যান। বাস্তববাদি চিন্তা করে তবেই কেরিয়ারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা। মকর রাশির জাতক কিংবা জাতিকা, সকলেই আগামী ২০১৯ সালে চরম উন্নতির মুখ দেখবেন। নিজের ভাগ্য নিজেই গড়ার দিকে এঁরা এগিয়ে যাবেন ধীরে ধীরে। সাফল্য এঁদের ছায়াসঙ্গী হবে ২০১৯ সালে। যদিও আপনার আর্থিক অবস্থান উন্নত হয়েছে, তবুও টাকা বেরিয়ে যাওয়ায় আপনার প্রকল্পগুলির কার্যনির্বাহে বাধার সৃষ্টি করবে। সাময়িক সঙ্গীর সঙ্গে ব্যাক্তিগত ব্যাপার আলোচনা করবেন না। আজ আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির খুবই অভাব অনুভব করতে পারেন। আপনি পরোপকার ও সামাজিক কাজের দিকে আকৃষ্ট হবেন- ভালো কাজে সময় দিয়ে আপনার জীবনে অভূতপূর্ব পরিবর্তন আনতে পারেন। দিনটি আপনার বিবাহিত জীবনের ধৈর্য পরীক্ষা করবে। জিনিস আপনার নিয়ন্ত্রাধীনে রাখতে শান্ত থাকুন।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
বহুদিন বাদে কেরিয়ারে ব্যাপক ভালো সময় আসতে চলেছে। আপনার বহুদিনের পরিশ্রমের ফল এই বছর আপনি পেতে পারেন, যদি সঠিক পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে যান। বাস্তববাদি চিন্তা করে তবেই কেরিয়ারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন জ্যোতিষশাস্ত্রবিদরা।

আপনার অর্থ ভাগ্য
মকর রাশির জাতকদের ২০১৯ সাল আর্থিক স্বচ্ছ্বলতার মধ্যে দিয়েই কাটবে। বছরের প্রথভাগে থাকবে কিছু ইনভেস্টমেন্ট। আর বছরের পরের দিকে থাকবে অর্থ উপার্জনের রেশ। তবে বাড়িতে খরচ কমালে সঞ্চয়ের দিক থেকে লাভবান হবেন।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
মকর রাশির জাতক জাতিকারা এই বছর প্রেমের ক্ষেত্রে উন্নতির মুখ দেখতে পারেন। প্রেমের ক্ষেত্রে বাধা বিঘ্ন আসলেও একযোগে তা আপনাকে ও আপনার সঙ্গীকে মিলে মোকাবিলা করতে হবে। মকর রাশির জাতক বা জাতিকারা ২০১৯ সালে চরম সুখর দাম্পত্য সম্পর্ক উপভোগ করতে চলেছেন। সঙ্গীদের মধ্যে একে অপরকে বোঝার ক্ষমতা বেডে় উঠবে। আপনার যেকোনও কাজে আপনার সঙ্গীকে আপনি পাশে পাবেন ২০১৯-এ।




মকর রাশিফল ২০১৮

২০১৮ সাল এমন একটা বছর যেখানে আপনি জীবনের গভীরতা সম্পর্কে বুঝতে পারবেন। একদিকে আপনার ব্যয় যেমন বৃদ্ধি পাবে এবং আপনি অনুভব করবেন আর্থিক অবস্থা খারাপ হচ্ছে। অপর দিকে, আপনি স্বাস্থ্য নিয়েও সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। কিন্তু, কিছু বিদেশী যোগাযোগের মাধ্যমে আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে। ২০১৮ সালের বৈদিক জ্যোতিষ অনুসারে, আপনার মধ্যে আধ্যাত্মিকতার প্রবণতা বাড়বে এবং কিছু সময়ের জন্য পার্থিব জগত থেকে দূরত্ব আপনি অনুভব করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে কর্তৃত্ব লাভ করবেন, কিন্তু যেকোনো ধরণের ষড়যন্ত্র থেকে আপনাকে দূরে থাকতে হবে। আপনার কাজের দায়িত্ব এবং সম্মান বৃদ্ধি পাবে এবং একটি গুরুত্বপূর্ণ নতুন প্রকল্প হাতে আসবে। শিক্ষার্থীদের অবস্থা ভালো থাকবে এবং শিক্ষা ও নতুন জিনিস শেখার দিকে ঝোঁক বাড়বে। আপনাকে বড়দের সাথে ভালো সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে এবং তাদের থেকে বিশেষ সাহায্য পেতে পারেন বিশেষ করে মার্চ ও মে মাসের মধ্যে। পারিবারিক জীবন খুশিতে ভরে উঠবে এবং সম্পর্কে উষ্ণতা বাড়বে। বৈবাহিক জীবনে কিছু ভুল বোঝাবুঝি সংঘটিত হতে পারে যা আপনার এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ। অক্টোবরের পর, আপনার বিবাহিত জীবন উন্নত হবে এবং আপনি ভালো ব্যক্তিগত জীবন উপভোগ করবেন। সবমিলিয়ে, এই বছর আপনি উন্নতি করবেন এবং দুর্বলতাকে দূর করে এগিয়ে যাবেন।
প্রতিকার : ছয় মুখী রুদ্রাক্ষ ধারণ করুন।

Aquarius

jan 20 - feb 18



কুম্ভ (২১ জানুয়ারি – ১৮ ফেব্রুয়ারি)
শুভ রং: নীল, সবুজ ও বেগুনী
শুভ সংখ্যা: ৪
পাথর: পান্না ও হীরা
টোটকা:
শুভ দিন : শুক্র ও শনিবার।
শুভ ধাতু : সোনা, রুপা, হোয়াইট গোল্ড।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : মিথুন, তুলা।

কুম্ভ রাশির জাতক
এই রাশির জাতক ও জাতিকারা স্বভাবতই বুদ্ধিমান, ঠাণ্ডা মাথার মানুষ এবং কাজকর্মে ভীষণ রকম স্বচ্ছ। এদের কল্পনাশক্তি প্রখর। যেকোনো ভালো কাজ এদের অনুপ্রেরণা জোগায় এবং সেই জাতীয় কাজে অংশগ্রহণের জন্য তারা মরিয়া হয়ে উঠে। বৃহত্ কিছু করার ইচ্ছা তাদের থাকে সবসময়। কুম্ভদের সঙ্গে পরিকল্পনা করা খুব কঠিন। কারণ তারা কোনো কিছু এত সুদূরে চিন্তা করে পরিকল্পনা করে যে তার উপরে আস্থা আনা কঠিন হয়। তাই অনেক বন্ধু থাকার পরেও কুম্ভ তার বন্ধুদের সঙ্গে মিলে কোনোকিছু করতে পরে না। কুম্ভরা মিথ্যাচার ও প্রতারণা ঘৃণা করে এবং তারা ধার দেওয়া ও নেওয়া অপছন্দ করে। তারা আপনাকে টাকা উপহার হিসেবে দিতে পারে, কিন্তু তাদের কাছে টাকা ধার চেয়ে লাভ হবে না। আপনার সঙ্গে কথা না বলেই সে বুঝতে পারবে আপনার মধ্যে কোনো একটা কিছুর গভীর প্রয়োজন রয়েছে, যেটা হয়তো আপনার নিজের কাছেও অস্পষ্ট। ইউরেনাস শাসিতদের অজানা ব্যাপার বুঝে নেওয়ার অদ্ভুত ক্ষমতা রয়েছে। তারা তাদের অনুমান দিয়েই এসব বুঝে নিতে পারে। আর অনুমানশক্তি তাদের মধ্যে একধরনের পূর্ব-উপলব্ধির জন্ম দেয়। কোনোকিছু ঠিকমতো জানার পর সেটাতে বিশ্বাস বা আস্থা আনা সহজ, কিন্তু কুম্ভদের লক্ষ্য যদিও ভবিষ্যতের কোনো অস্থির নীলাকাশের দিকে, তবুও তারা বাস্তববাদী। যদি ভালো বন্ধু খুঁজে থাকেন, তাহলে রাশি মিলিয়ে একজন কুম্ভর সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে তুলুন। একটু আলসে হলেও বন্ধুর প্রয়োজনে এই মানুষটি তার সব সুখ-আহ্লাদ ভুলে যেতে প্রস্তুত। কুম্ভ জাতকদের মনোযোগী হয়ে ওঠার ক্ষমতা সত্যিই অসাধারণ। কুম্ভ জাতক বা জাতিকাদের বন্ধুদের প্রতি বাত্সল্য ছাড়া তেমন ঘনিষ্ঠ কিছু নেই বললেই চলে। গুণের সমাবেশ না দেখে তারা বরং বন্ধুদের সংখ্যার দিকেই বেশি মনোযোগী। একটা নির্দিষ্ট সময়ের বেশি কোনো সম্পর্কেই তাদের স্থায়িত্ব থাকে না।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
কুম্ভ রাশির জাতকদের ২০১৯ সালে বিভিন্ন কাজে অর্থের প্রবল প্রয়োজন পড়বে। এজন্য বেশ খানিকটা কসরৎ করতে হবে গোটা বছর জুড়ে। এটাই পরীক্ষামূলক দিক। কুম্ভ রাশির জাতক ও জাতিকারা ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকেই যৌনজীবন সম্পর্কে ব্যাপক আগ্রহী হতে শুরু করবেন। বছরভর যৌনসুখ উপলব্ধি করার একাধিক হাতছানি থাকবে আপনাদের কাছে। সঙ্গীর সঙ্গে একাধিকবার ঘনিষ্ঠ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ২০১৯ সালে। অত্যন্ত ধৈর্য সঙ্গে নিয়ে তবেই কেরিয়ারের যেকোনও সিদ্ধান্ত নিন। যেকোনও কাজের ক্ষেত্রে ঝাঁপিয়ে পড়ে এগিয়ে যান। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ভালোনজরে আপনি এই বছরে আসতে বাধ্য!২০১৯ সাল আপনাদের জন্য খুবই সুখের। দাম্পত্য জীবন যেমন ভালো কাটবে, তেমনই বিবাহযোগ্যদের বিয়ের সম্ভাবনা প্রবল। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রেম আরও বাড়তে থাকবে। ব্যস্ত সময়সূচী সত্ত্বেও স্বাস্হ্য সুন্দর থাকবে, কিন্তু আপনার জীবনকে নিশ্চিন্তভাবে নেবেন না, উপলব্ধি করুন যে জীবনের প্রতি যত্নই হল আসল ব্রত। আজ আপনি সহজেই মূলধন- অনাদায়ী ঋণ জোগাড় করতে পারবেন- বা নতুন প্রকল্পে কাজ করার জন্য পুঁজির অনুরোধ করতে পারেন। পরিবারের সদস্যদের সাথে দূরত্ব অতিক্রম করার মাধ্যমে- আপনি সহজেই আপনার লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবেন। আপনার প্রেমিকার আবেগের চাহিদার সামনেও মাথা নোয়াবেন না। কর্মক্ষেত্রে আপনি একটি ভাল পরিবর্তনের সম্মুখীন হতে পারেন। প্রাণোচ্ছল হাসিপূর্ণ একটি দিন যেখানে বেশির ভাগ জিনিসই আপনার ইচ্ছা অনুসারে এগোবে।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
অত্যন্ত ধৈর্য সঙ্গে নিয়ে তবেই কেরিয়ারের যেকোনও সিদ্ধান্ত নিন। যেকোনও কাজের ক্ষেত্রে ঝাঁপিয়ে পড়ে এগিয়ে যান। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ভালোনজরে আপনি এই বছরে আসতে বাধ্য!

আপনার অর্থ ভাগ্য
কুম্ভ রাশির জাতকদের ২০১৯ সালে বিভিন্ন কাজে অর্থের প্রবল প্রয়োজন পড়বে। এজন্য বেশ খানিকটা কসরৎ করতে হবে গোটা বছর জুড়ে। এটাই পরীক্ষামূলক দিক।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকারা এবছর দেশ বিদেশ ভ্রমণের মাধ্যমে নতুন কোনও সঙ্গী খুঁজে পেতে পারেন। নতুন সম্পর্ক অনেকের জীবনকেই উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। ২০১৯ সাল আপনাদের জন্য খুবই সুখের। দাম্পত্য জীবন যেমন ভালো কাটবে, তেমনই বিবাহযোগ্যদের বিয়ের সম্ভাবনা প্রবল। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রেম আরও বাড়তে থাকবে।




কুম্ভ রাশিফল ২০১৮

ুম্ভ রাশির জাতকদের জন্য ২০১৮ সালের রাশিফল অনুযায়ী আপনার সিদ্ধান্ত এই বছর উন্নতির ভিত্তি স্থাপন করবে। ধনার্জন বৃদ্ধির ওপর আপনার মুখ্য মনোযোগ থাকবে। কঠিন প্রচেষ্টা আপনাকে লাভবান করবে। আর্থিক অবস্থা সুদৃঢ় হবে। দূর ভ্রমণও এই বছর হতে পারে। আপনি বুদ্ধিমত্তাপূর্ণ এবং ফলদায়ক সিদ্ধান্ত নেবেন। যদি একটু খেয়াল রাখেন তো আপনার স্বাস্থ্যও এই বছর ভালো থাকবে এবং পুরনো রোগ থেকে মুক্তি আপনি পেতে পারেন। গুরুজনরা প্রশংসা আপনি প্রাপ্ত করবেন। বিবাহিত জীবনে স্নেহ এবং ভালোবাসা থাকবে। তবে, প্রথম দুই মাস একটু ঝুঁকিপূর্ণ থাকবে, কারণ কিছু ঝগড়া বা জীবনসঙ্গীর স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাঁরা প্রেম-সম্পর্কের মধ্যে আছেন তাঁদের একটু বেশি মনোযোগ দিতে হবে এবং তার সাথে তাঁদের একে অপরকে ভালো করে বোঝার প্রয়োজন থাকবে। শিক্ষার্থীরা কঠিন পরিশ্রম করবে। সন্তানদের জন্য কিছু বিব্রতভাব থাকতে পারে তবে রাখবেন তাদের বাড়বাড়ন্তের জন্য একটু ভালোবাসার দরকার। সবমিলিয়ে, আপনার জন্য এটি একটি যথার্থ এবং প্রগতিশীল বছর থাকবে।
প্রতিকার : শিবের আরাধনা করুন।

Pisces

feb 19 - mar 20




মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি – ২০ মার্চ)
শুভ রং: সাদা, নীল, সবুজ
শুভ সংখ্যা: ৭
পাথর: রক্ত প্রবাল, হলুদ পোখরাজ, মুনস্টোন
টোটকা:
শুভ দিন : বৃহস্পতি ও সোমবার।
শুভ ধাতু : রুপা।
শুভ সঙ্গী/সঙ্গিনী : কর্কট, বৃশ্চিক।

মীন রাশির জাতক
মীনের স্বভাবে অন্যান্য রাশিগুলোর বৈশিষ্ট্যের মিশ্রণ থাকে, আর সেটা বহন করা একজন মীন জাতকের পক্ষে যথেষ্ট কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। যত বেশি শৈল্পিক ও সৃষ্টিশীল পরিবেশ হবে, যত বেশি অবসর এবং দুর্বোধ্য পরিবেশ হবে তত বেশি এমন স্থানে মীনকে খুঁজে পাওয়া যাবে। বিয়ের সূত্রে কিংবা উত্তরাধিকার সূত্রে না পেলে মীনদের মধ্যে কাড়ি কাড়ি টাকাওয়ালা মানুষ তেমন একটা নেই। তাই বলে টাকার বিরুদ্ধে তাদের কোনো ক্ষোভ নেই। আর দশটা রাশির মানুষরা যাকে পুরোনো কয়েন হিসেবে বিবেচনা করেন, মীন সেগুলো আনন্দ সহকারে গ্রহণ করে নিজের কাছে স্বযত্নে সাজিয়ে রাখবে। নেপচুনসুলভ বৈশিষ্ট্যের অধিকারী যেকোনো হূদয় সাধারণত লোভহীন হয়। মীনও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে তাদের মধ্যে তীব্রতার অভাব লক্ষ্য করা যায়। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, এরা ভবিষ্যতের ব্যাপারে পুরোপুরি পরোয়াহীন হয়। আশপাশের সবাই যখন মাথা গোঁজার ঠাঁই খুঁজতে ফ্ল্যাটের দাম কমলো কী বাড়লো সেই চিন্তাতে অধীর, মীন হয়তো তখন ভাবছেন নিজের পছন্দের কোনো পারফিউম একটা এক্সট্রা কিনে রাখার কথা। বর্তমানকে ঠাণ্ডা মাথায় মেনে নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে। মীনের কল্পনাশক্তি ও বুদ্ধিমত্তা যেখানে প্রয়োগের সুযোগ আছে সেখানে মীন দারুণ জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারে। এদের শৈল্পিক প্রতিভা অসাধারণ। যুক্তি প্রয়োগে কোনো জিনিস অনুধাবনের চেয়ে সামান্য মনোযোগেই তারা অনেক জটিল সমস্যার গভীরে প্রবেশ করতে পারে। তারা বিশ্বস্ত, গৃহবিমুখী, দয়ালু ও সংযমী। নতুন নতুন আইডিয়া তাদের মাথা থেকে বের হয়। আন্তরিক আচরণ ও অলসতাপূর্ণ ভালোমানুষীর কারণে তারা সবাই খুব দ্রুত সবার প্রিয় মানুষটি হয়ে ওঠেন। নিজেদের স্বপ্ন এবং জীবনযাপনের ব্যাপারে নিজস্ব স্টাইলের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা ছাড়া অন্য সব বাধার ব্যাপারেই তারা খুবই নির্লিপ্ত। অপমান, অপবাদ, ঝগড়া-বিবাদ এসব ব্যাপারেও তারা একেবারেই ভাবলেশহীন। মীন হলো অন্য রাশিগুলোর বৈশিষ্ট্য নিয়ে গঠিত একটি জটিল রাশি।

কেমন যাবে ২০১৯ সাল
অত্যন্ত ধৈর্য সঙ্গে নিয়ে তবেই কেরিয়ারের যেকোনও সিদ্ধান্ত নিন। যেকোনও কাজের ক্ষেত্রে ঝাঁপিয়ে পড়ে এগিয়ে যান। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ভালোনজরে আপনি এই বছরে আসতে বাধ্য!কুম্ভ রাশির জাতক ও জাতিকারা ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকেই যৌনজীবন সম্পর্কে ব্যাপক আগ্রহী হতে শুরু করবেন। বছরভর যৌনসুখ উপলব্ধি করার একাধিক হাতছানি থাকবে আপনাদের কাছে। সঙ্গীর সঙ্গে একাধিকবার ঘনিষ্ঠ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ২০১৯ সালে। মীন রাশির জাতক কিম্বা জাতিকারা আর্থিক দিক থেকে নজর কাড়া সিদ্ধান্তের পথে এগিয়ে যাবেন ২০১৯ সালে। এই বছরে বহু ক্ষেত্র থেকে এঁরা প্রচুর পরিমাণ অর্থ আয় করতে পারবেন। তবে তার জন্য প্রয়োজন সঠিক কিছু লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা। মীন রাশির জাতক কিংবা জাতিকাদের জন্য সুখবর নিয়ে আসতে পারে ২০১৯! বিবাহযোগ্যদের বিয়ের সম্ভাবনা প্রবল এই বছরে। অগাস্ট মাসের আশপাশে অনেকেই দাম্পত্য সুখ প্রবলভাবে উপভোগ করতে পারবেন। বিবাহিকতদের জন্যও এই বছরটি অত্যন্ত সুখের।

নতুন বছরে আপনার কেরিয়ার
মীন রাশির জাতক ও জাতিকারা এই বছরে নিজেদের বুদ্ধিমত্তার দিক থেকে আপনি অনেক ক্ষেত্রেই উন্নতি করবেন। আর তার ফসল স্বরূপ কেরিয়ারে একাধিক উন্নতি লেগেই থাকবে আপনার।

আপনার অর্থ ভাগ্য
মীন রাশির জাতক কিম্বা জাতিকারা আর্থিক দিক থেকে নজর কাড়া সিদ্ধান্তের পথে এগিয়ে যাবেন ২০১৯ সালে। এই বছরে বহু ক্ষেত্র থেকে এঁরা প্রচুর পরিমাণ অর্থ আয় করতে পারবেন। তবে তার জন্য প্রয়োজন সঠিক কিছু লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা।

নতুন বছরে প্রেম ও বিয়ে
২০১৯ সালের জুন মাস থেকে মীন রাশির জাতকরা প্রেমের ক্ষেত্রে বেশ খানিকটা সুখের মুখ দেখবেন। নিজের সম্পর্ক মজবুত হলে, আপনাকে সেখান থেকে কেউ বার করে আনতে পারবে না! মীন রাশির জাতক কিংবা জাতিকাদের জন্য সুখবর নিয়ে আসতে পারে ২০১৯! বিবাহযোগ্যদের বিয়ের সম্ভাবনা প্রবল এই বছরে। অগাস্ট মাসের আশপাশে অনেকেই দাম্পত্য সুখ প্রবলভাবে উপভোগ করতে পারবেন। বিবাহিকতদের জন্যও এই বছরটি অত্যন্ত সুখের।



মীন রাশিফল ২০১৮

মীন রাশির জাতকরা সংবেদনশীল হন, ভেতর এবং বাইরে দুদিক থেকেই। সারা বছর; বিশেষত অক্টোবর পর্যন্ত, স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিৎ। তারপর তারা সুন্দর জীবন উপভোগ করতে সক্ষম হবে। প্রয়োজনের অতিরিক্ত মানসিক চাপ এবং অনেক বেশী কাজকর্ম আপনার শরীর খারাপ করতে পারে। কর্মক্ষেত্রে আকাঙ্ক্ষিত ফলাফল পাবার জন্য আপনি অতিরিক্ত প্রচেষ্টার ওপর বিশ্বাস রাখেন। বরিষ্ঠরা আপনার কাছ থেকে শ্রেষ্ঠ পরিনাম আশা করবে, আর এই কারণে আপনার ওপর চাপ আসতে পারে। আর্থিক দিক দিয়ে জানুয়ারী ঝুঁকিপূর্ণ থাকবে। এমনকি ফেব্রুয়ারীতেও যেকোন বড় বিনিয়োগ স্থগিত রাখা উচিৎ। এরপর থেকে আপনার আর্থিক উন্নতি গতি পাবে এবং আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে। অবাঞ্ছিত ভ্রমণ হতে পারে। বিবাহিত জীবন খুব ভালো হবে এবং আপনার জীবনসঙ্গী আপনাকে বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করবে। পেশাগত কারণে স্থান পরিবর্তনও করতে হতে পারে। সন্তানদের দুষ্টুমি বাড়বে এবং তাদের ভালো-মন্দের শিক্ষা দিতে আপনাকে কঠোর হতে হবে। শিক্ষার্থীরা পড়াশুনার জন্য শর্টকাট নিতে পারে এবং তাদের স্বভাবে খামখেয়ালী দেখা দিতে পারে, তবে লেখাপড়ায় মন দিতে হবে। আপনিও জীবনে শর্টকাট নিতে চেষ্টা করতে পারেন, তবে এটার থেকে আপনাকে বেঁচে চলতে হবে। জীবনের পথে সোজা চলায় আপনার উচিত হবে। অক্টোবরের পর, আপনি জীবনে ভালো পরিবর্তন দেখতে পাবেন।এই বছরে স্বাস্থ্যকে প্রথম প্রাধান্য দেওয়া এবং কাজ ও ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে সাম্য বজায় রাখা আপনার উচিৎ।
প্রতিকার : হলুদ চন্দন বিষ্ণুজীকে চড়ান এবং বড়দের সম্মান করুন।


Lob Mukherjee Govt.Enrolled &Enlisted Astrologer Founder of Astro Research Centre ph 8906959633 Email --lobmukherjee@gmail .com Website www.jsmarc.com Add--Rampurhat .Harisava para.Birbhum please like and share my page --Astro Research Centre